Mamata Banerjee’s Tribute to Santhal Freedom Fight – West Bengal State-level Hool Utsav to begin in Jhargram today

0
2309
Hool Utsav - Santhal Freedom Fight
Hool Utsav - Santhal Freedom Fight

State-level Hool Utsav to begin in Jhargram today

State-level Hool Utsav to begin in Jhargram today

For the first time, the state level Hool Utsav will be organised at Jhargram in West Midnapore, giving the people of Jangalmahal an opportunity to witness the programme on a large scale. Around 22 teams of different tribal art forms will be participating in the programme.

Hool Utsav is organised every year to commemorate the fight of the tribal people against the British Raj in 1885. The three-day-long Hool Utsav will begin on June 30 at the ground of Kumud Kumari Institution at Jhargram in West Midnapore.

There will be programmes in all districts, including Kolkata on the same day.

The programmes in the districts other than West Midnapore will last two day s. On the other hand, the state level programme at Jhargram will be three-days long.

Tribal dances, including Pata and Karam, will be performed in the Hul Utsav. Artists from four districts – Purulia, Burdwan, Murshidabad and Nadia – will be performing in the state level programme. The programme will be inaugurated at 4 pm on June 30. State tribal Development Minister James Kujur and Backward Classes Welfare Minister Churamoni Mahata will be present in the programme.

Besides cultural programmes, camps of different departments of the West Bengal government – including MSME, Panchayat and Rural Development, Agriculture Marketing and Fisheries – will be set up in the premises of Hul Utsav. Awareness will be spread among people about the different facilities and schemes taken up the departments for their benefits in the camps.

Women from different self help groups will also be participating in the programme. Goods and other products prepared by them will be exhibited and available for sale.

The State Government will also showcase its achievements in bringing an overall development of Jangalmahal in the past five years. In other districts, two-day long programmes will be held, in which folk and tribal artists will be performing to celebrate the occasion.

Bengali Version

আজ ঝাড়গ্রামে শুরু হবে হুল দিবস অনুষ্ঠান   

এই প্রথমবার রাজ্যস্তরের হুল দিবসের অনুষ্ঠান হবে পশ্চিম মেদিনীপুরের ঝাড়গ্রামে। ১৮৮৫ সালে ব্রিটিশ রাজের বিরুদ্ধে উপজাতীয়দের যুদ্ধ স্মৃতিরক্ষার্থে প্রতি বছর হূল উৎসবের আয়োজন করা হয়। তিন দিনব্যাপী এই উৎসব হবে পশ্চিম মেদিনীপুরের ঝাড়গ্রাম এ কুমুদ কুমারীর ইনস্টিটিউশনের মাঠে।

কলকাতা সহ বিভিন্ন জেলায় ওই দিনেই এই উৎসব পালিত হবে।  পশ্চিম মেদিনীপুরসহ অন্যান্য জেলায় দু-দিন ধরে এই অনুষ্ঠান চলবে এবং ঝাড়গ্রামে তিন দিন ব্যাপী এই অনুষ্ঠান চলবে।

প্রতি বছরই রাজ্যস্তরের হুল উৎসব পালিত হয় কলকাতায়।  এ বার রাজ্যস্তরের হুল দিবসের অনুষ্ঠান হবে পশ্চিম মেদিনীপুরের ঝাড়গ্রামে। এর ফলে জঙ্গলমহলের মানুষজন এই উৎসবে অংশগ্রহণ করতে পারবেন। বিভিন্ন উপজাতী শিল্পীদের ২২ টি দল এই প্রোগ্রামে অংশগ্রহণ করবে।

পাতা, করম এইসব আদিবাসী নাচ হবে হুল উতসবে। রাজ্যস্তরের এই অনুষ্ঠানে পুরুলিয়া, বর্ধমান, মুর্শিদাবাদ এবং নদিয়ার শিল্পীরা এই অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করবে।। ৩০ জুন বিকালে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন আদিবাসী উন্নয়ন মন্ত্রী জেমস কুজুর, অনগ্রসর শ্রেণিকল্যাণ মন্ত্রী চূড়ামণি মাহাতো প্রমুখ।উৎসব চলবে ৩০ জুন-২ জুলাই পর্যন্ত।

বিভিন্ন স্ব-নির্ভর গোষ্ঠীর মহিলারাও অংশগ্রহণ করবে এই প্রোগ্রামে। স্বনির্ভর গোষ্ঠীর সদস্যাদের তৈরি হস্তশিল্পের প্রদর্শনী ও বিক্রয়-সহ অন্য অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করা হয়েছে। গত পাঁচ বছরে জঙ্গলমহলের সামগ্রিক উন্নয়ন করেছে রাজ্য সরকার।

উল্লেখ্য, ক্ষমতায় আসার পর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একটি পৃথক আদিবাসী উন্নয়ন পর্ষদ গঠন করেছে। এই পর্ষদ গঠনের পর আদিবাসী বিভাগের অভূতপূর্ব উন্নয়ন হয়েছে, তাঁরা অনেক উপকৃত হয়েছেন। গত হূল উৎসবে মুখ্যমন্ত্রী শিল্পীদের বাদ্যযন্ত্র বিতরণ করেছেন। রাজ্য সরকারের এই পদক্ষেপ এইসব শিল্পীদের উৎসাহ দিয়েছে।

রাজ্য সরকারের সহযোগিতায়, শিল্পী, খুব, এখন তাদের সেরা দিচ্ছেন উচ্চ মাত্রার শিল্প ফর্ম নিতে তাছাড়া, বর্তমান রাজ্য সরকারের উদ্যোগে হূল উৎসব  রাজ্য স্তরের একটি জনপ্রিয় অনুষ্ঠানে পরিণত হয়েছে।