Centre trying to unilaterally rule over States: Trinamool delegation tells President

0
590
Mamata Banerjee
Mamata Banerjee

Centre trying to unilaterally rule over States: Trinamool delegation tells President

Centre trying to unilaterally rule over States: Trinamool delegation tells President
A delegation of 10 Trinamool MPs led by Leader of the party in Lok Sabha, Sudip Bandyopadhyay, met the President of India at Raj Bhavan, Kolkata.“Our main purpose to meet the President was to show how the Centre is breaking the barriers of the federal structure,” Sudip Bandyopadhyay said.

“They are dictating the terms to States on how schemes are to be implemented and how money is to be spent on such schemes or what should their names be,” he added.

“Earlier there was Planning Commission where the States had the chance to interact with the Deputy Chairman. Now the Planning Commission has been dissolved and Niti Ayog has been set up,” the veteran MP said.

President of India - Pranab Mukherjee
President of India – Pranab Mukherjee

“We raised the issue of monitoring of State Treasury. This is unbelievable. There is also the other issue of unilateral deputation of officers at under-secretary level. Then there is the issue of 100 Days’ Work. Centre owes Rs 1700 crore to the State,” Sudip Bandyopadhyay added.

Centre is making an attempt to unilaterally rule over the States.
Decisions about developmental projects are being taken without consulting States at any level, the senior parliamentarian alleged. He said that Trinamool will raise these issues in the Parliament.

যুক্তরাষ্ট্রীয় পরিকাঠামোয় কেন্দ্রের হস্তক্ষেপ নিয়ে রাষ্ট্রপতির দ্বারস্থ তৃণমূল

লোকসভায় তৃণমূলের দলনেতা সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে আজ এক প্রতিনিধি দল দেখা করে রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের সঙ্গে। কেন্দ্র যুক্তরাষ্ট্রীয় পরিকাঠামোয় হস্তক্ষেপ করছে সেটাই রাষ্ট্রপতিকে কাছে আমরা জানিয়েছি, বলেন সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়।কেন্দ্র রাজ্যের কাজে হস্তক্ষেপ করছে। কোন প্রকল্পে কত টাকা কি ভাবে খরচ হবে, সেটাও কেন্দ্র বলে দিচ্ছে, অভিযোগ সুদীপের। আগে প্ল্যানিং কমিশনে রাজ্য নিজের দাবিদাওয়া রাখতে পারতো। কিন্তু এখন কমিশন উঠিয়ে তৈরী হয়েছে নীতি আয়োগ, বলেন সুদীপ।“রাজ্যের ট্রেজারির ওপর নজরদারির চেষ্টার কথা মারা রাষ্ট্রপতিকে জানিয়েছি। বলেছি আন্ডার সেক্রেটারি লেভেলের অফিসারদের ডেপুটেশনের প্রসঙ্গ। এছাড়াও ১০০ দিনের কাজে রাজ্যের পাওনা ১৭০০ কোটি টাকার বিষয়টিও জানানো হয়েছে,” বলেন বর্ষীয়ান এই সাংসদ।

উনি আরও বলেন যে কেন্দ্র চাইছে রাজ্যের সব ক্ষমতা কেড়ে নিতে। রাজ্যকে না জানিয়ে উন্নয়নমূলক কাজের সিদ্ধান্ত নেওয়া হচ্ছে। সুদীপ বলেন যে এই বিষয়গুলি সংসদে উত্থাপন করবে তৃণমূল।