Second edition of Ahare Bangla to promote Bengal heritage food items in a grand scale

0
2245
Jamai Shasti - Bengali Food
Jamai Shasti - Bengali Food

Second edition of Ahare Bangla to promote Bengal heritage food items in a grand scale

Second edition of Ahare Bangla to promote Bengal heritage food items in a grand scale

Buoyed by the success of the previous year, the ‘Ahare Bangla – A Unique Food Festival celebrating Bengal’ showcasing the popular and gourmet cuisine of the state shall be inaugurated on 21st October, 2016 at 6 P.M. at Milan Mela Ground (Opposite Science City) Kolkata. Going by the response of the last year’s festival, this year it shall be held in a larger area having a one time sitting capacity of about 2500 people. The entry of the festival is free and it will remain open from 12 Noon to 9 P.M. for further four days starting from 22nd October, 2016 to 25th October, 2016.

This five days long food carnival is going to be organized by the Animal Resources Development Department of Government of West Bengal in association with other concerned departments of the Government, namely, Micro, Small & Medium Enterprises & Textiles, Information and Cultural Affairs, Food Processing Industries & Horticulture, Fisheries and Agricultural Marketing.

Sufal Bangla, West Bengal State Export Promotion Society, West Bengal Livestock Development Corporation Limited, West Bengal State Fisheries Development Corporation Ltd, Benfish, West Bengal State Food Processing & Horticulture Development Corporation Limited and Mother Dairy Calcutta have partnered to showcase their conventional as well as innovative products in the festival.

The principal objective of this unique Food Carnival is to promote the Food and Food Processing Industries in the State. This Fair shall provide a platform where the producers and the consumers can interact under one roof and which in turn shall directly benefit the larger farming community of the State.

West Bengal has many unique varieties of rice namely, black aromatic rice popularly known as Kalabhat, short grained aromatic rice Kalonunia, Gobindabhog, Tulaipanji, Kataribhog etc. similarly, pulses such as Sonamug, Bhajakalai dal etc. and some exotic vegetables are found only in this part of the country which will be displayed in the fair.

The Animal Recourses Development Department shall promote various non-conventional meat and meat products of Quail, Turkey, Rabbit, Emu, Pork (including special Ghunghroo variety), Black Bengal goat, Bonopala lamb, Garole lamb. The Fisheries Department will exhibit new varieties of fish with high productivity and taste such as Vennami, Pungus, Vietnam Koi etc. All the items mentioned here, be it a aromatic rice varieties or precious pulses or various conventional or non-conventional meat and meat products or the latest products or Mother Diary Calcutta or the delicacies of rare and exotic fish, shall be available for both exhibition and retail sale at the fair.

Further, renowned restaurants and caterers of the city will partner with the Government to bring their diversified cuisine in a unique interactive setting where anyone can see, eat and buy.

A special zone in the form of “Theme Food” will feature innovative and separate themes each day and a kid zone will be set up which would be an added attraction of this year’s carnival.

 

আয়োজিত হতে চলেছে ‘আহারে বাংলা’-র দ্বিতীয় বর্ষ

গত বছরের অভূতপূর্ব সাফল্যের পর এই বছরেও আগামী ২১ অক্টোবর সন্ধ্যা ৬টায় মিলন মেলা প্রাঙ্গনে সারা বাংলার সমস্ত সমৃদ্ধ খাবারের সম্ভার নিয়ে উদ্বোধন করা হবে ‘আহারে বাংলা ২০১৬’। এই বছর এই মেলাটি আরো বড় আকারে করা হবে, যাতে ২৫০০মানুষ একত্রে বসতে পারেন। এই মেলাটিতে জনসাধারণ বিনামূল্যে প্রবেশ করতে পারবেন। মেলাটি চলবে ২২ থেকে ২৫ অক্টোবর পর্যন্ত দুপুর ১২টা থেকে রাত ৯টা অবধি। এই মেলাটির আয়োজক রাজ্য প্রাণী সম্পদ দফতর, ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প দফতর, তথ্য ও সংস্কৃতি দফতর, খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ দফতর, উদ্যানপালন দফতর, মত্স দফতর।

সুফল বাংলা, রাজ্য প্রাণিসম্পদ বিকাশ দফতর, বেনফিশ, খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ দফতর, মাদার ডেয়ারী সহ আরো অনেক দফতর নিজেদের তৈরী বিভিন্ন খাদ্য ভান্ডার নিয়ে ওখানে উপস্থিত থাকবে। এই মেলাটির মুখ্য উদ্দেশ্য হচ্ছে খাদ্য ও খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ দফতরের উন্নয়ন।

এখানে ক্রেতা ও চাষীরা সরাসরি কথা বলতে পারবেন যার ফলে চাষীরা উপকৃত হবেন। বিভিন্ন ধরণের চাল ও ডাল ও কিছু সবজি যা দেশের মধ্যে একমাত্র বাংলাতেই পাওয়া যায়, সেই সব ধরণের সামগ্রী এই মেলাতে মজুত থাকবে।

প্রাণী সম্পদ দফতর বিভিন্ন ধরণের মাংস ও মত্স দফতর বিভিন্ন ধরণের মত্স ভান্ডারিয়ে উপস্থিত হবে এই মেলায়।এই সমস্ত ধরণের খাদ্য সামগ্রী ওখানে দেখাও যাবে ও খুচরো পরিমানে কেনাও যাবে। বিভিন্ন নামকরা রেস্টুরেন্ট ও ক্যাটারাররাও তাদের বিখ্যাত খাবার নিয়ে ওখানে উপস্থিত থাকবে।প্রতিদিন আলাদা আলাদা করে কিছু নতুন খাবারকে ‘থিম ফুড’ হিসেবে রাখা হবে। শিশুদের জন্য থাকবে ‘কিড জোন’।