Bengal Tourism Update – Japanese garden to be set up at Eco Park

0
2105
Satabdi Acharyya - Dance Production
Satabdi Acharyya - Dance Production

Japanese garden to be set up at Eco Park

Japanese garden to be set up at Eco Park

The West Bengal Housing and Infrastructure Development Corporation is setting up a Japanese garden that will come up on 3.5 acres of land and will be situated next to the central lake at Eco Park.

Two months would be required to complete the project. The Japanese forest will be the first of its kind in the State. The project has been taken up to commemorate the centenary of Rabindranath Tagore’s first visit to Japan over 100 years ago.

There would be a large gate with ticketing kiosks and a huge rain shelter canopy. The walkway will be decorated with numerous garden elements of Shinto, lanterns and small and large Buddha sculptures, walking stone and many others. Various types of bamboo plants will be planted in an organic manner to replicate the forests.

Lanterns in stone and weathered sculptures will be arranged to give the area a natural and aesthetic look. Small smiling Buddha sculptures will welcome the visitors at the entrance. A monastery with a centrally located Pagoda, an inspiration from Ryonji monastery will be made which is a space for meditation.

The monastery will have a three-layer Pagoda. It is the replica of an original Pagoda. A central pond will be created with Japanese semi circular bridge across it. A wish fountain will also be set up. There will be 15 covered Japanese food outlet where specially cooked Japanese food will be served.

Once completed the garden would be a wonderful place to visit. The place and the ambience will woo visitors, he said. It may be mentioned that Eco Park has become the most popular tourist destination and over 50 lakh people have visited the place since its inception.

 

নিউটাউনে তৈরী হচ্ছে জাপানী গার্ডেন

WBHIDCOর উদ্যোগে নিউটাউনের ইকোপার্কে ৩.৫ একর জমির ওপর গড়ে উঠতে চলেছে জাপানী গার্ডেন। এই গার্ডেনটি তৈরী করতে দু মাস লাগবে। রাজ্যে এই প্রথম জাপানীস গার্ডেন গড়ে উঠবে। মূলত রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের জাপান সফরের স্মৃতিতে নেওয়া হয়েছে এই উদ্যোগ।

এই পার্কে একটি বিশাল দরজা তৈরী করা হবে যাতে সয়ংক্রিয় টিকেটের মেশিন থাকবে ও একটি বিশাল শামিয়ানা থাকবে বৃষ্টি থেকে বাঁচতে। যাতায়াতের রাস্তাটিকে প্রচুর পরিমানে শিন্তো, লণ্ঠন ও বুদ্ধমূর্তি, পাথর ও নানারকম জিনিস দ্বারা সাজানো হবে। জৈব পদ্ধতিতে বাঁশগাছ দিয়ে জায়গাটি সাজানো হবে অরণ্যের আবহ তৈরী করতে।

এই জাপানী গার্ডেন এর নান্দনিক শোভা বাড়াতে থাকবে নানা মূর্তি। প্রবেশদ্বারে থাকবে লাফিং বুদ্ধ মূর্তি, দর্শকদের স্বাগত জানাতে। ধ্যান করার জন্য এই উদ্যানের কেন্দ্রস্থলে একটি প্যাগোডা বিশিষ্ট বৌদ্ধমঠ থাকবে রায়ণজি মঠের অনুকরণে। এর মাঝে একটি পুকুর তৈরী করা হবে ও সঙ্গে জাপানি অর্ধবৃত্তাকার সেতু দিয়ে ঘেরা থাকবে। ওখানে ১৫টি জাপানি খাবারের দোকানও থাকবে।

স্বভাবতই এই জাপানী গার্ডেন ভবিষ্যতে একটি জনপ্রিয় গন্তব্য হয়ে উঠবে পর্যটকদের কাছে