West Bengal Budget gets Business community support – Chambers of commerce laud State Budget

0
584
Mamata Banerjee at Germany
Mamata Banerjee at Germany

Chambers of commerce laud State Budget

Chambers of commerce laud State Budget

The Chambers of Commerce and Business Confederations lauded the Budget statement 2017-18 by state Finance minister Amit Mitra. The state Budget was placed at the Assembly on Friday. They believe that this Budget after demonetisation can help the state’s growth.

Talking on the Budget, Rakesh Shah, President, Bharat Chamber of Commerce, Kolkata, said it is a balanced Budget.

Chandra Sekhar Ghosh, President-Designate, The Bengal Chamber of Commerce and Industry, said he believes this Budget is a welfare oriented exercise in the aftermath of demonetisation.

 

Confederation of Indian Industry (CII) also welcomed the proposals to earmark Rs 50 crore for Small and Medium Enterprises and Rs 100 crore for farmers.

The State Finance Minister’s announcement on salary increase for Anganwadi workers and Asha workers reflect the State Government’s “sincere will” to improve health and education at the grassroots level, said Rupali Basu, Vice Chairperson, CII Bengal.

In a statement released by Merchants’ Chambers of Commerce and Industry (MCCI), they said: finance minister proposed a number of steps in relation to VAT which will be subsumed over GST, is put in place.

রাজ্য বাজেটের প্রশংসা চেম্বার্স অফ কমার্সগুলির

অর্থমন্ত্রীর রাজ্য বাজেটের (২০১৭-১৮) প্রশংসা করল শিল্পমহল। শুক্রবার বিধানসভায় রাজ্য বাজেট পেশ করেন অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র। তাদের বিশ্বাস নোটবাতিলের পর এই বাজেট রাজ্যের বৃদ্ধিতে অনেক সাহায্য করবে।

রাজ্য বাজেট সম্পর্কে কলকাতার ভারত চেম্বার অফ কমার্সের রাকেশ শাহ বলেন, এটা একটি সুষম ব্যালেন্সড বাজেট।

দ্য বেঙ্গল চেম্বার অফ কমার্স এবং ইন্ডাস্ট্রির ডেজিগনেটেড সভাপতি চন্দ্রশেখর ঘোষ বলেন, নোট বাতিলের পর এটি একটি কৌশলপূর্ণ বাজেট।

ক্ষুদ্র মাঝারি শিল্পের কারিগরদের জন্য ৫০ কোটি টাকা এবং কৃষকদের জন্য ১০০ কোটি টাকা বরাদ্দের প্রস্তাবকে স্বাগত জানিয়েছে কনফেডারেশন অফ ইন্ডিয়ান ইন্ডাস্ট্রি।

সি আই আই এর ভাইস চেয়ারপার্সন রূপালী বসু বলেন, অঙ্গনওয়াড়ি ও আশা কর্মীদের বেতন বৃদ্ধির কথা ঘোষণা করেছেন অর্থমন্ত্রী, অতএব সরকার স্বাস্থ্য ও শিক্ষার উন্নতিতে বিশেষ জোর দিচ্ছেন।

মার্চেন্ট চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি একটি বিবৃতিতে তারা বলেন, অর্থমন্ত্রীর ভ্যাট সম্পর্কিত অনেকগুলি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ  নিয়েছেন যা জি এস টি চালু হলে তার অন্তর্ভুক্ত হবে।