কেন্দ্রীয় মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী, ওয়েবিনারের মাধ্যমে দেশজুড়ে ছাত্র-ছাত্রীদের সঙ্গে বৈঠক করলেন

0
1826
Books - Friend for Life
Books - Friend for Life

নতুন দিল্লি, ৫ মে, ২০২০

কেন্দ্রীয় মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী শ্রী রমেশ পোখরিয়াল ‘নিশাঙ্ক’, দেশজুড়ে ছাত্র – ছাত্রীদের সঙ্গে ওয়েবিনারের মাধ্যমে মত বিনিময় করেছেন। মন্ত্রী, স্কুলের পরীক্ষা, ভর্তির পরীক্ষা, শিক্ষাবর্ষ, অনলাইনে লেখাপড়া, ফি বা মাইনে, ছাত্র-ছাত্রীদের মানসিক স্বাস্থ্য, আন্তর্জাতিক ছাত্র-ছাত্রী এবং ফেলোশিপের মতন বিষয়গুলির প্রশ্নের উত্তর দেন।

মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শ্রী নরেন্দ্র মোদী, দেশের ছাত্র – ছাত্রীদর কল্যাণ ও শিক্ষা সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে সবসময় চিন্তাভাবনা করেন। এই প্রসঙ্গে মন্ত্রক, ছাত্র – ছাত্রীদের বিভিন্ন সমস্যার সমাধানে সক্রিয় বলেও শ্রী পোখরিয়াল জানান। তিনি দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী, শ্রী সঞ্জয় ধোতরের ভূমিকারও প্রশংসা করেন।

আলোচলার সময় মন্ত্রী জানান, নিট পরীক্ষা ২৬শে জুলাই অনুষ্ঠিত হবে। জেইই মেইন ১৮ই, ২০শে, ২১শে, ২২শে এবং ২৩শে জুলাই অনুষ্ঠিত হবে। জেইই অ্যাডভান্স অগাষ্ট মাসে হওয়ার সম্ভাবনা আছে। তিনি আরো বলেন, ইউজিসি নেট – ২০২০ এবং সিবিএসসি-র দ্বাদশ শ্রেণীর পরীক্ষার দিন পরে ঘোষণা করা হবে।

মন্ত্রী, ছাত্র – ছাত্রীদের সঙ্গে আলোচনার সময় তাঁদের পড়াশোনার সময়সূচী সম্পর্কে খোঁজখবর নেন। ভর্তি পরীক্ষায় পাঠ্যক্রম এবং প্রশ্নের ধরণ জানা খুব জরুরী বলে তিনি উল্লেখ করেন।

শ্রী পোখরিয়াল, ভর্তির পরীক্ষার জন্য ন্যাশনাল টেস্টিং এজেন্সির ওয়েবসাইট থেকে পদার্থবিদ্যা, রসায়নবিদ্যা, গণিত এবং জীববিদ্যার ওপর ক্লাসগুলি করার পরামর্শ দেন। এসংক্রান্ত ওয়েবসাইটি হল – https://nta.ac.in/LecturesContent.

গ্রামাঞ্চলে নেটওয়ার্কের সমস্যার জন্য অনলাইনে ক্লাসের অসুবিধের প্রসঙ্গটি আলোচনায় স্থান পায়। মন্ত্রী জানান, মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রক, তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রকের সঙ্গে যৌথভাবে স্বয়ম প্রভা চ্যানেল চালু করেছে। আরেকটি প্রশ্নের জবাবে শ্রী পোখরিয়াল বলেন, ২০২০ – ২১ শিক্ষাবর্ষে আইআইটি, আইআইআইটি এবং এনআইটিগুলির ফি বাড়ানো হবে না।

কোভিড – ১৯ এর মোকাবিলায় লকডাউন জারি করার ফলে শিক্ষাবর্ষে যে সমস্যা দেখা দিয়েছে মন্ত্রক, তা সমাধানের লক্ষ্যে কাজ করছে। তিনি জানান, বিদ্যালয়স্তরে ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য বিকল্প বর্ষপঞ্জী তৈরি করা হয়েছে। যেখানে প্রযুক্তি ও সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে ছাত্র-ছাত্রীরা পড়াশোনা করতে পারবেন।

বোর্ডের পরীক্ষাগুলির বিষয়ে মন্ত্রী জানান, মূল বিষয়গুলিতেই পরীক্ষা নেওয়া হবে। কারণ উচ্চশিক্ষায় এই বিষয়গুলির প্রাপ্ত নম্বর ভর্তির সময় কাজে আসবে। সিবিএসসি, পয়লা এপ্রিল তার ২৯ বিষয়ে http://cbse.nic.in/ এই ওয়েবসাইটে তথ্য দিয়েছে। উত্তর-পূর্ব দিল্লির যে সমস্ত ছাত্র – ছাত্রীরা দশম শ্রেণীর পরীক্ষায় বসতে পারে নি, তারা ভবিষ্যতে যখন পরীক্ষা নেওয়া হবে, তখন সেই পরীক্ষাগুলি দিতে পারবে।

স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর স্তরে ভর্তির প্রক্রিয়া ৩১শে অগাষ্টের মধ্যে শেষ করতে হবে। তবে, প্রয়োজন দেখা দিলে যোগ্যতা নির্ণয়ের পরীক্ষার নথি ৩০শে সেপ্টেম্বরের মধ্যে জমা দিলেও চলবে।

ছাত্র – ছাত্রীদের সঙ্গে কথা বলে মন্ত্রী সন্তোষ প্রকাশ করেছেন। তিনি কাউকে বর্তমান পরিস্থিতিতে শঙ্কিত না হবার পরামর্শ দেন। তিনি বলেন, মন্ত্রকের ওয়েবসাইটে পরীক্ষা, শিক্ষাবর্ষ সহ বিভিন্ন তথ্য সময় অনুযায়ী দেওয়া হবে।