নগ্ন আয়না – শরীর না মন কাকে বেশি উন্মুক্ত করে সুরে সুরে

0
272
নগ্ন আয়না - শরীর না মন কাকে বেশি উন্মুক্ত করে সুরে সুরে
নগ্ন আয়না - শরীর না মন কাকে বেশি উন্মুক্ত করে সুরে সুরে

নগ্ন আয়না – শরীর না মন কাকে বেশি উন্মুক্ত করে সুরে সুরে
অভিজিৎ পাল,ক্যালকাটা,১৮ সেপ্টেম্বর :

“যন্ত্রনা গুলো মুছে দেবে
আছে কার অওকাৎ !!
যত সমঝোতা কোরে চলাই
হাতিয়ার নিষেধের আঁচড়ে
ঝরছে রক্ত আমি জানি
আসলে তুমি নারীর জাত…”.

অনেক গভীরে পুরানের রক্তবীজ নিহত… রামের বিচারে তাই সীতাও পবিত্রতার পরীক্ষায় দগ্ধ
সন্ধিহান… নিষিদ্ধ পরোয়ানায় পুরুষের শরীরে হিংসার শাসন হয় স্পষ্ট. নারীর জাত, শব্দের মধ্যেই বার বার নির্বাসিত হয় স্ত্রী লিঙ্গ.. সন্মান অর্জনের লড়াই পাইয়ে দিতে দুইহাজার কুড়ির ডিজিটাল বিশ্বও কোনঠাসা, বিভিন্ন, বিভক্ত.

সমবেদনাই তো সম্বল হয়েছে তিরস্কার বার বার মাথা নীচু করিয়েছে.. অশিক্ষার থেকে মুক্ত হতে পারিনি সমাজ, পুরুষসমাজ. ভোগ ও লালসার কবরে কতো লাশ যে গুম হয়েছে তার পরিসংখ্যান দিতে পারবে না কোন রাজ্য হোক বা রাষ্ট্র.. বুলি আওরানো নীতিবীদের দরগায় নারীদের প্রবেশ নিষেধ.. বোরখার পিছনে প্রতিদিন কতো বেহুলা যে ধর্ষিত হয়ে যায় তার খবর মরা খুঁটে খাওয়া কাক শকুনই দিতে পারবে..

দি মিথ বাংলা ব্যান্ডের
প্রথম অরিজিনাল “নগ্ন আয়নায় ” সেই ধিক্কার স্পষ্ট ভাবে বেজেছে..
সাধুবাদ দিতেই হয় প্রথম হিসেবে সহজ সরল প্রেমের গান না কোরে তারা এমন গান বেছে নিয়েছে.
বাংলাগানের বিশ্বযুদ্ধে সামিল হলো “দি মিথ্”.. তাদের নিজস্ব কম্পোজিশন ও লিরিক্স নিয়ে প্রায় একপ্রকার নিজের কাছে অনেক প্রশ্ন তুলতে বাধ্য করবে ওরা..

ভিডিওগ্রাফি ছিমছাম ও সুন্দর.. তবে গানটির মিক্সডমাস্টার ও সাউন্ড ডিজাইন আরও সুন্দর হতে পারতো…মিশ্র সুরের ভাবনা স্পষ্ট তবে শেষের দিকে RAP এর অংশটুকু আপনাকে চুপ করতে বাধ্য করবে.. পরের ভাবনা আশা করি আরও শক্তিশালী আর অন্য রকম বিষয় নিয়ে হবে…

‘দি মিথ ‘ব্যান্ডের সদস্যরা হলেন
অরিজিৎ নাথ
শুভদীপ রেজ
অনিকেত দে
অরিজিৎ ভট্টাচার্য
রাজশ্রী দে মজুমদার
প্রদীপ্ত
….তারা তাদের বেস্টটাই দেয়ার চেষ্টা করেছে আর চেষ্টা কোন দিন হারে না… হারতে পারে না

আপাততঃ…

” আজ নিজের সাথে শুধু নিজের বিবাদ
রাত পোহালেই শুরু হাজার ফোকাস
তুমি সরীসৃপ সেলিব্রিটি হঠাৎ..
………………
………..
তোমার সন্তানও হতে পারে নারীর জাত “