২০২০-২১ খরিফ মরশুমে ন্যূনতম সহায়ক মূল্যে ফসল ক্রয়

0
182
Agriculture in India
Agriculture in India

২০২০-২১ খরিফ মরশুমে ন্যূনতম সহায়ক মূল্যে ফসল ক্রয়

চলতি খরিফ মরশুমে ন্যূনতম সহায়ক মূল্যে ধান বিক্রয় করে ৪০.৫৩ লক্ষ কৃষক উপকৃত হবেন। এর মূল্য ৭০৩১১.৭৮ কোটি টাকা

By PIB Kolkata

নতুন দিল্লী, ১২ ডিসেম্বর, ২০২০ চলতি খরিফ মরশুমে সরকার কৃষকদের কাছ থেকে ন্যূনতম সহায়ক মূল্য ফসল সংগ্রহ অব্যাহত রেখেছে। ২০২০-২১ খরিফ মরশুমে বিভিন্ন রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে কৃষকদের কাছ থেকে ন্যূনতম সহায়ক মূল্য ধান সংগ্রহ অব্যাহত রয়েছে।

পাঞ্জাব, হরিয়ানা, উত্তরপ্রদেশ, তেলেঙ্গানা, উত্তরাখণ্ড, তামিলনাডু, চন্ডিগড়, জম্মু-কাশ্মীর, কেরালা, গুজরাট, অন্ধপ্রদেশ, ওড়িশা, মধ্যপ্রদেশ, মহারাষ্ট্র এবং বিহার থেকে গত ১১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ৩৭২.৪১ লক্ষ মেট্রিক টন ধান সংগ্রহ করা হয়েছে। গত বছর এই সময় পর্যন্ত এর পরিমাণ ছিল ৩০৮.৫৭ লক্ষ মেট্রিক টন। অর্থাৎ গত বছরের চেয়ে ২০.৬৮ লক্ষ মেট্রিক টন অতিরিক্ত ধান কৃষকদের কাছ থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে।

বর্তমান খরিফ মরশুমে ন্যূনতম সহায়ক মূল্যে যে পরিমাণ ধান সংগ্রহ করা হয়েছে তারমধ্যে পাঞ্জাব একাই করেছে ২০২.৭৭ লক্ষ মেট্রিক টন। যা মোট সংগ্রহের ৫৪.৪৫ শতাংশ। সারাদেশে এ পর্যন্ত ন্যূনতম সহায়ক মূল্য ধান বিক্রি করে ৪০.৫৩ লক্ষ কৃষক উপকৃত হয়েছেন। মোট অর্থের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৭০৩১১.৭৮ কোটি টাকা। 

ধানের পাশাপাশি রাজ্যগুলির চাহিদা মেনে বর্তমান খরিফ মরশুমে ন্যূনতম সহায়ক মূল্য কৃষকদের কাছ থেকে ৪৮.১১ লক্ষ মেট্রিক টন ডাল ও তৈলবীজ সংগ্রহ করা হয়েছে। যার অধিকাংশই এসেছে তামিলনাডু, কর্ণাটক, মহারাষ্ট্র, তেলেঙ্গানা, গুজরাট, হরিয়ানা, উত্তরপ্রদেশ, ওড়িশা, রাজস্থান এবং অন্ধ্রপ্রদেশ থেকে। গত ১১ ডিসেম্বর পর্যন্ত সরকার নোডাল এজেন্সি মারফত ১৫৪৪২৩.৪৬ মেট্রিক টন মুগ, বিউলি, সয়াবিন, চিনাবাদাম সংগ্রহ করেছে। যার মূল্য ৮২৯.৫৭ কোটি টাকা।এর ফলে উপকৃত হয়েছেন তামিলনাডু, মহারাষ্ট্র, গুজরাট, হরিয়ানা এবং রাজস্থানের ৮৭০২৪ জন কৃষক।