রেল যাত্রীদের কাছ থেকে বেশি ভাড়া নিচ্ছে বলে বেশ কয়েকটি সংবাদ মাধ্যমে যে প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে তা বিভ্রান্তিমূলক এবং সত্য নয়

0
202
Spanish Train - Indian Railways
Spanish Train - Indian Railways
PIB Kolkata

নয়াদিল্লী, ১৪ জানুয়ারি, ২০২১     বেশকিছু সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ভাড়া নিচ্ছে রেল। এটি সম্পূর্ণ মিথ্যে, বিভ্রান্তিকর এবং এরসঙ্গে বাস্তবের কোনও ভিত্তি নেই।     উৎসব অথবা ছুটির দিনগুলতে  যাত্রীদের দ্রুত গন্তব্যস্থলে পৌঁছে দিতে দীর্ঘদিন ধরেই ভারতীয় রেল বিশেষ ট্রেন চালিয়ে থাকে। এবছর ভারতীয় বিভিন্ন ক্ষেত্রে চাহিদার ভিত্তিতে উৎসবের জন্য একাধিক ট্রেন চালাচ্ছে। মূলত এই উৎসবমুখী ট্রেন চালানোর উদ্দেশ্যই হল ভিড় লাঘব করা।      ২০১৫ সাল থেকে এই ধরণের ট্রেন পরিষেবায় যাত্রীভাড়া অন্যান্য সময়ে ট্রেন পরিষেবা থেকে কিছুটা বেশি রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এই বিষয়টি এবছরের নতুন কিছু নয়। এটি প্রতি বছরই হয়ে থাকে।      এটি লক্ষ্যণীয় যে যাত্রী পরিষেবায় বরাবরই ভারতীয় রেল ভর্তুকি দিয়ে থাকে। তবে তারজন্য যাত্রীদের যাতায়াতের ক্ষেত্রে কোনও বাধা পেতে হয়না। এমনকি ভারতীয় রেল কোভিডের মতো সংকটপূর্ণ সময়েও ট্রেন চালিয়েছে।      কোভিডের সময় যাতে যাত্রীদের অতিরিক্ত ভাড়ার বোঝা বহন করতে না হয় তারজন্য পদক্ষেপ গ্রহণ করেছিল রেল।      সংরক্ষিত শ্রেণীতে যাত্রীরা যাতে সবচেয়ে কম ভাড়ায় যাতায়াত করতে পারেন তারজন্য দ্বিতীয় শ্রেণীর কামরার সংখ্যা বহুগুণ বাড়ানোর সিদ্ধান্ত  নিয়েছে ভারতীয় রেল। নিয়মনীতি অনুযায়ী বিশেষ সময়ে ট্রেনের যাত্রী ভাড়া দ্বিতীয় শ্রেণীর সংরক্ষিত কামরার যাত্রী ভাড়ার মূল্য থেকে কখনই ১৫ টাকার বেশি হয়না।      ভারতীয় রেল প্রতিনিয়ত ট্রেন সংখ্যা বাড়িয়ে চলেছে। যাত্রীবাহি ট্রেনগুলিতে নিয়মিত পরিষেবা পুরোদমে চালু করতে একাধিক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে রেল। উল্লেখ্য, কোভিডের জেরে গত বছরের ২২শে মার্চ দেশজুড়ে লকডাউনের জেরে নিয়মিত ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।     তবে কোভিডের-১৯এর সংকটপূর্ণ সময়ে ভারতীয় রেল প্রয়োজন ভিত্তিতে বিশেষ ট্রেন পরিষেবা চালু রেখেছে। এমনকি এখনও মানুষের সুবিধার্থে একাধিক ট্রেন চালাচ্ছে ও বিশেষ ট্রেনের সংখ্যা ক্রমশই বৃদ্ধি করেছে। পাশাপাশি পরিস্থিতির ওপর নিয়মিত লক্ষ্য  রাখা হচ্ছে।