কোভিড–১৯ সংক্রান্ত পিআইবি-র প্রাত্যহিক সংবাদ

0
172
Rapid Regulatory Frame Work for COVID-19
Rapid Regulatory Frame Work for COVID-19
ShyamSundarCoJwellers

কোভিড–১৯ সংক্রান্ত পিআইবি-র প্রাত্যহিক সংবাদ

By PIB Kolkata

নতুন দিল্লি, ০৬ই এপ্রিল, ২০২১

২৪ ঘণ্টায় ৪৩ লক্ষ টিকার ডোজ দেওয়ার মাধ্যমে একদিনে টিকাকরণ অভিযানে ভারত এক মাইলফলক অর্জন করেছে, ৮ কোটির বেশি টিকা দেওয়া হয়েছে; কোভিড–১৯ এর জন্য ২৪ কোটির বেশি নমুনা পরীক্ষা  হয়েছে। 

টিকাকরণ অভিযানের অঙ্গ হিসাবে গত ২৪ ঘণ্টায় ৪৩ লক্ষ টিকার ডোজ দেওয়ার মাধ্যমে একদিনে টিকাকরণের ক্ষেত্রে ভারত এক মাইলফলক অর্জন করেছে। এ পর্যন্ত দেশে একদিনে টিকাকরণের ক্ষেত্রে এটিই সর্বোচ্চ। 
টিকাকরণ অভিযানের ৮০তম দিনে ৪৩ লক্ষ ৯৬৬ জনকে টিকা দেওয়া হয়েছে। ৪৮ হাজার ৯৫টি টিকাকরণ পর্বের মাধ্যমে ৩৯ লক্ষ ৫০৫ জন সুবিধাভোগীকে টিকার প্রথম ডোজ এবং ৪ লক্ষ ৪৬১ জন সুবিধাভোগীকে দ্বিতীয় ডোজ প্রদান করা হয়েছে। আজ পর্যন্ত দেশে কোভিড-১৯ এর বিরুদ্ধে টিকাকরণ অভিযানে ৮ কোটি ৩১ লক্ষ মানুষকে টিকা দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে ৭ কোটি ২২ লক্ষ ৭৭ হাজার ৩০৯ জনকে টিকার প্রথম ডোজ দেওয়া হয়েছে। 
আজ সকাল ৭টা পর্যন্ত মোট ১২ লক্ষ ৮৩ হাজার ৮১৬টি টিকাকরণ পর্বের মাধ্যমে ৮ কোটি ৩১ লক্ষ ১০ হাজার ৯২৬ জনকে টিকা দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে ৮৯ লক্ষ ৬০ হাজার ৬১ জন স্বাস্থ্য কর্মীকে প্রথম ডোজ, ৫৩ লক্ষ ৭১ হাজার ১৬২ জন স্বাস্থ্য কর্মীকে দ্বিতীয় ডোজ, ৯৭ লক্ষ ২৮ হাজার ৭১৩ জন প্রথম সারির কর্মীকে প্রথম ডোজ এবং ৪২ লক্ষ ৬৪ হাজার ৬৯১ জন প্রথম সারির কর্মীকে দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হয়েছে। ৬০ বছরের বেশি বয়সী ৩ কোটি ৪১ লক্ষ ৬ হাজার ৭১ জন সুবিধাভোগীকে প্রথম ডোজ এবং ৮ লক্ষ ১২ হাজার ২৩৭ জন সুবিধাভোগীকে দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হয়েছে। পাশাপাশি, ৪৫ বছর বা তার বেশি বয়সী ১ কোটি ৯৪ লক্ষ ৮২ হাজার ৪৬৪ জনকে প্রথম ডোজ এবং ৩ লক্ষ ৮৫ হাজার ৫২৭ জনকে দ্বিতীয় ডোজ প্রদান করা হয়েছে। দেশে প্রতিদিনই করোনার বিরুদ্ধে টিকাকরণের রেখাচিত্র ক্রমশই ঊর্ধ্বমুখী।
দেশে আজ পর্যন্ত মোট ২৫ কোটি মানুষের কোভিড নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। সংক্রমণের হার সামান্য বেড়ে ৫.০৭ শতাংশ হয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ৯৬ হাজার ৯৮২ জন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন। দেশে দৈনিক সংক্রমণ ক্রমশই বাড়ছে। মহারাষ্ট্র, ছত্তিশগড়, কর্ণাটক, উত্তর প্রদেশ, তামিলনাডু, দিল্লি, মধ্যপ্রদেশ এবং গুজরাট – এই ৮টি রাজ্যে দৈনিক কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশই ঊর্ধ্বমুখী। এই ৮টি রাজ্যে নতুন করে আক্রান্তের হার ৮০.০৪ শতাংশ।
মহারাষ্ট্রে একদিনে ৪৭ হাজার ২৮৮ জন আক্রান্ত হয়েছেন। ছত্তিশগড়ে ৭ হাজার ৩০২ এবং কর্ণাটকে ৫ হাজার ২৭৯ জন নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন। দেশে এখন মোট করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৭ লক্ষ ৮৮ হাজার ২২৩ জন। মহারাষ্ট্রে সংক্রমিত চিকিৎসাধীনের হার ৫৭.৪২ শতাংশ। এ পর্যন্ত দেশে মোট আরোগ্যলাভ করেছেন ১ কোটি ১৭ লক্ষ ৩২ হাজার ২৭৯ জন। সুস্থতার হার ৯২.৪৮ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় কোভিড মুক্ত হয়েছেন ৫০ হাজার ১৪৩ জন। 
গত ২৪ ঘণ্টায় ৪৪৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। মহারাষ্ট্রে একদিনে ১৫৫ ও পাঞ্জাবে ৭২ জনের মৃত্যু হয়েছে। তবে, ওডিশা, আসাম, পুদুচেরী, লাদাখ, দমন ও দিউ, দাদরা ও নগর হাভেলী, নাগাল্যান্ড, মেঘালয়, মণিপুর, ত্রিপুরা, লাক্ষাদ্বীপ, মিজোরাম, আন্দামান ও নিকোবর দ্বীপপুঞ্জ এবং অরুণাচল প্রদেশ – এই ১৩টি রাজ্য/কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল থেকে গত ২৪ ঘণ্টায় কোভিড সংক্রমিতদের কোনও মৃত্যুর খবর পাওয়া যায়নি।
বিস্তারিত জানার জন্য ক্লিক করুন নিম্নলিখিত লিঙ্কে – https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1709926 

কোভিড – ১৯ এর সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের জন্য কেন্দ্র, মহারাষ্ট্র, ছত্তিশগড় এবং পাঞ্জাবে ৫০টি উচ্চ পর্যায়ের দল পাঠিয়েছে। 
কেন্দ্র, বেশি সংখ্যায় কোভিড সংক্রমণ এবং সংক্রমিতদের মৃত্যুর হার বেশি হওয়ায় মহারাষ্ট্র, ছত্তিশগড় এবং পাঞ্জাবে মোট ৫০টি উচ্চ পর্যায়ের দল পাঠিয়েছে। এই দলের সদস্যরা মহারাষ্ট্রে ৩০টি জেলা, ছত্তিশগড়ের ১১ এবং পাঞ্জাবের ৯টি জেলায় রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তরকে সহযোগিতার জন্য কাজ করবে। দুই সদস্যের প্রত্যেকটি দলে ১ জন মহামারি বিশেষজ্ঞ এবং ১ জন জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ থাকবেন। এই দলগুলি সংশ্লিষ্ট রাজ্যে যথাযথ কোভিড আচরণ বিধি মেনে চলা হচ্ছে কিনা সেবিষয়ে নজরদারী চালাবে। 
বিস্তারিত জানার জন্য ক্লিক করুন নিম্নলিখিত লিঙ্কে – https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1709739 
কেন্দ্র, ৪৫ বছরের কম বয়সী যারা কোভিড টিকা নিয়েছেন, তাঁদের শনাক্ত করতে দিল্লি সরকারকে বলেছে, যে সব বেসরকারী কোভিড টিকাকরণ কেন্দ্র থেকে এই কাজটি করা হয়েছে, তাদের শোকজ নোটিশ পাঠানো হয়েছে। 
কোভিড – ১৯ এর থেকে সমাজের ঝুঁকিপূর্ণ মানুষদের রক্ষা করার জন্য় টিকাকরণ কর্মসূচী শুরু হয়েছে। কিন্তু কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক, জিএনসিটিডি-র স্বাস্থ্য বিভাগের প্রধান সচিবকে লেখা এক চিঠিতে জানিয়েছে, ৪৫ বছরের কম বয়সী যারা টিকা নিয়েছেন, তাদের শনাক্ত করতে হবে। এছাড়াও যে সব বেসরকারী স্বাস্থ্যে কেন্দ্রে এই টিকা দেওয়া হয়েছে, তাদের বিরুদ্ধে কারণদর্শানোর নোটিশ পাঠিয়েছে। 
বিস্তারিত জানার জন্য ক্লিক করুন নিম্নলিখিত লিঙ্কে -https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1709708  

ডাঃ হর্ষ বর্ধন, সুসংহত স্বাস্থ্য তথ্য মঞ্চের উদ্বোধন করেছেন, সুসংহত রোগ নজরদারী কর্মসূচীর আওতায় অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে। 
কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী ডাঃ হর্ষ বর্ধন, সুসংহত স্বাস্থ্য তথ্য মঞ্চের উদ্বোধন করেছেন। এই উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ প্রতিমন্ত্রী শ্রী অশ্বিনী কুমার চৌবে, উত্তরাখন্ডের মুখ্যমন্ত্রী শ্রী তিরথ সিং রাওয়াত ডিজিটালি অংশগ্রহণ করেন। সুসংহত রোগ নজরদারী কর্মসূচীর আওতায় অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে। এর ফলে বর্তমানে ৩৩টি রোগকে শনাক্ত করা সম্ভব হবে। আগে ১৮টি রোগকে চিহ্নিত করা যেত। 
বিস্তারিত জানার জন্য ক্লিক করুন নিম্নলিখিত লিঙ্কে – https://pib.gov.in/PressReleseDetail.aspx?PRID=1709676 

কোভিড-১৯এর সংক্রমণ আটকাতে কেন্দ্রীয় সরকারের যেসব কর্মীর বয়স ৪৫ বা তার বেশি তাদের সকলকে টিকা নিতে পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে
কেন্দ্রীয় সরকার, তার যেসমস্ত কর্মীর বয়স ৪৫ বা তার বেশি সেইসব কর্মীদের কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ আটকাতে টিকা নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছে। কর্মী, জন-অভিযোগ এবং পেনশন মন্ত্রকের এক নির্দেশ অনুসারে টিকা নেওয়ার পরও এইসব কর্মচারীকে কোভিড সংক্রান্ত যথাযথ নিয়মাবলী অর্থাৎ ঘন ঘন হাত ধোয়া, পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন থাকা, মাস্ক অথবা ফেস কভার পরা এবং শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখার মতো নিয়মগুলি মেনে চলতে হবে। 
    সরকার পরিস্থিতির দিকে নিবিড়ভাবে নজর রাখছে। কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ আটকাতে বিভিন্ন বয়সের নাগরিকদের টিকা দেওয়ার যে কৌশল নেওয়া হয়েছে তাতে যাদের বয়স ৪৫ বা তার বেশি তারা সকলেই  এখন টিকা নিতে পারবেন। 
    ওই নির্দেশে আরও বলা হয়েছে কোভিড-১৯ এর সংক্রমণ আটকাতে কর্মী, জন-অভিযোগ ও পেনশন মন্ত্রক বিভিন্ন সময়ে নানা ধরণের পরামর্শ দিয়ে থাকে।

বিস্তারিত জানার জন্য ক্লিক করুন নিম্নলিখিত লিঙ্কে – https://pib.gov.in/PressReleasePage.aspx?PRID=1709945 

পিআইবি-র আঞ্চলিক কার্যালয় থেকে প্রাপ্ত তথ্য

•    আসাম : গত ২৪ ঘন্টায় আরো ২ জন কোভিড সংক্রমিত মারা গেছেন। এর ফলে রাজ্যে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে হল ১১০৯। কোভিড – ১৯ এর সংবাদ বুলেটিন অনুযায়ী আসামে চৌঠা এপ্রিল ৭০৭৫টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। 
•    মণিপুর : মণিপুরে গত ২৪ ঘন্টায় আরো ৫ জনের নমুনায় সংক্রমণ ধরা পড়ায় রাজ্যে সংক্রমিত চিকিৎসাধীন ২৯,৪২৮ জন। কোভিড – ১৯ কমন কন্ট্রোল রুম থেকে এই তথ্য পাওয়া গেছে। 
•    মেঘালয় : স্বাস্থ্যমন্ত্রী এ এল হেক, সোমবার বলেছেন, সঠিকভাবে ব্যবস্থা না নিলে কোভিড – ১৯ এর দ্বিতীয় ঢেউ আটকানো সম্ভব নয়। ইতিমধ্যেই সংক্রমিত চিকিৎসাধীনের সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে। রাজ্যের স্বাস্থ্য পরিষেবার নির্দেশক ড. আমন ওয়ার জানিয়েছেন, অনেক রাজ্যে প্রথম দফার লকডাউনের মতো পরিস্থিতির তৈরি হয়েছে। নর্থ ইস্ট হিল ইউনিভাসিটিতে আরো ৪ জনের সংক্রমণ হওয়ার খবর মিলেছে। 
•    ত্রিপুরা : স্টেট ব্যাঙ্কের মুখ্য শাখার ১১ জন কর্মীর সংক্রমণ হয়েছে। এপর্যন্ত রাজ্যে ৭ লক্ষ ৫০ হাজার মানুষকে টিকা দেওয়া হয়েছে। 
•    সিকিম : ২ মাস ধরে এই প্রথম সিকিমে রেকর্ড সংখ্যক সংক্রমিত মারা গেলেন। রাজ্যে ১৩৬ জন সংক্রমণের জন্য মারা গেছেন। গত ২৪ ঘন্টায় আরো ৬ জনের দেহে ভাইরাসের উপস্থিতির প্রমাণ মিলেছে। 
•    নাগাল্যান্ড : সোমবার নাগাল্যান্ডে নতুন করে আরো ২ জনের সংক্রমিত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। বর্তমানে ঐ রাজ্যে ১৩৬ জন সংক্রমিত চিকিৎসাধীন। 
•    মহারাষ্ট্র : ভারতের প্রথম মহারাষ্ট্রে ৮০ লক্ষ মানুষকে কোভিড প্রতিরোধী টিকা দেওয়া হয়েছে। রাজ্যে দ্বিতীয় করোনা ঢেউের কারণে মুখ্যমন্ত্রী শ্রী উদ্ভব ঠাকরে,  তাঁর রাজ্যে যাদের বয়স ২৫ বা তার উর্দ্ধে সকলকে টিকা দেওয়ার অনুমতি দিতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ করেছেন। 
•    গুজরাট : গুজরাট সরকার রাজ্যে কোভিড সংক্রমণের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় ৮টি পুরসভার হাসপাতালের কোভিড কেয়ার সেন্টারের শয্যা সংখ্যা বাড়িয়েছে। 
•    রাজস্থান : মুখ্যমন্ত্রী অশোক গেহলট, টিকাকরণের জন্য বয়সের সীমা তুলে দিতে প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন করেছেন। 
•    মধ্যপ্রদেশ : মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান, সকলকে মাস্ক পরার আবেদন জানিয়েছেন। সোমবার নতুন করে আরো ৩৩৯৮ জন সংক্রমিত হয়েছেন।

Advertisements