সংবিধান বাঁচাও সমিতির ডাকে কলকাতায় মহামিছিল ও রাজ্যপালকে স্মারকলিপি প্রদান ২৮ এপ্রিল 2018

0
1514
Save Constitution
Save Constitution
ShyamSundarCoJwellers

সংবিধান বাঁচাও সমিতির ডাকে কলকাতায় মহামিছিল ও রাজ্যপালকে স্মারকলিপি প্রদান ২৮ এপ্রিল

সংবাদদাতা, কলকাতা: পশ্চিমবঙ্গে রামনবমী ও হুনুমান জয়ন্তী পালন এবং পঞ্চায়েত নির্বাচনে মনোনয়ন পেশকে ঘিরে যেভাবে অস্ত্র মিছিল সংগঠিত করে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা ও হিংসা ছড়ানো হয়েছে তার প্রতিবাদ জানাতে এবং দলিত ও সংখ্যালঘু বঞ্চনার প্রতিকার করতে আজ সাংবাদিক বৈঠকে দলিত ও সংখ্যালঘু নেতারা গর্জে ওঠেন। কলকাতা প্রেসক্লাবে। ২৮ এপ্রিল, শনিবার “সংবিধান বাঁচাও সমিতি”র ডাকে কলকাতায় মহামিছিল ও বিশাল জনসভা করে তারপর বিকেল চারটের সময় পশ্চিমবঙ্গের রাজ্যপালকে স্মারকলিপি প্রদান করা হবে একথা জানালেন, দলিত ও সংখ্যালঘুর অধিকার আদায়ের নেতা ফারুক আহমেদ।

মহতী মিছিল ও জনসভা সফল করতে আজ ২৫ এপ্রিল, ২০১৮ বুধবার বিকেল চারটের সময় কলকাতা প্রেস ক্লাবে সাংবাদিক বৈঠকে হাজির ছিলেন এবং মূল্যবান বক্তব্য রাখেন দলিত নেতা সমীর কুমার দাস, কঙ্কন গুঁড়ি, অনন্ত আচার্য়, বীরেন মাহাত, সুচেতা গোলদার, স্বপন হালদার, শরদিন্দু বিশ্বাস, তনুজ মজুমদার, নিখিল বিশ্বাস, জিতেন্দ্র বাল্মীকি ও সংখ্যালঘু নেতা মহঃ কামরুজ্জামান, মহঃ নূরউদ্দিন, কামরুদ্দিন মল্লিক প্রমুখ।

সংখ্যালঘু নেতা মহঃ কামরুজ্জামান ও মহঃ নূরউদ্দিন সাংবাদিক বৈঠকে গর্জে ওঠে বললেন, “দলিত, আদিবাসী ও সংখ্যালঘুদের বিরুদ্ধে যে বঞ্চনা, অন্যায়, অবিচার ও অত্যাচার চলছে গোটা দেশ জুড়ে তার প্রতিকার করতে আমরা বদ্ধপরিকর হয়েছি। কলকাতায় আগামী ২৮ এপ্রিল মহামিছিল ও মহাসমাবেশের ডাক দিয়েছি বিভিন্ন দলিত ও সংখ্যালঘু সংগঠনের হাজার হাজার মানুষ ওইদিন প্রতিবাদে সামিল হবেন। ধর্মতলার কাছেই রেড রোডে ড. বি আর আম্বেদকর মূর্তির পাদদেশে মিলবে মহামিছিল। ওই রেড রোডের ড. বি আর আম্বেদকর মূর্তির পাদদেশেই হবে প্রতিবাদসভা।

এই মহামিছিল ও প্রতিবাদসভা সফল করতে আজ এই সাংবাদিক বৈঠকের আয়োজন। বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের কাছে আমরা এই সংবাদ পরিবেশন করার আবেদন রাখছি।”
দলিত নেতা সমীর কুমার দাস বললেন, “এখনও পর্যন্ত ১৫ জন মানুষ পঞ্চায়েত ভোট উপলক্ষে রাজনৈতিক হিংসায় খুন হয়েছেন। এদের মধ্যে ১৪ জনই মুসলমান সম্প্রদায়ের মানুষ। আর রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে সাংবাদিক পিটিয়ে গণতন্ত্রকে ধ্বংস করার যে চক্রান্ত চলেছে তা আমরা কেউ মেনে নিতে পারিনা।

এই চরম অন্যায় ও অবিচারের প্রতিকার করতে আমরা দলিত ও সংখ্যালঘুদের নিয়ে মহাজোট করেছি। আজ এই সাংবাদিক বৈঠকে জানিয়ে দিলাম, যেকোনও অন্যায়ের প্রতিবাদে আপনারা রুখে দাঁড়ান দেশ ও আমাদের সোনার বাংলাকে বাঁচাতে আমরা পথে নেমেছি। “সংবিধান বাঁচাও সমিতি”র পক্ষ থেকে আগামী ২৮ এপ্রিল ২০১৮ আমরা আমাদের প্রতিনিধি দল নিয়ে রাজভবনে গিয়ে মাননীয় রাজ্যপালকে একগুচ্ছ দাবিসম্পন্ন স্মারকলিপি তুলে দেব, এইসব বঞ্চনা ও অন্যায়ের প্রতিকার চেয়ে।

এই কর্মসূচিকে কভার করে মানুষের ঘরে ঘরে আমাদের আওয়াজ পৌঁছে দিন বাংলায় আবার নতুন সূর্য উঠবে। দলিত ও সংখ্যালঘু কল্যাণে আগামীতে আসছে দিন সেটা হবে এই বাংলা ও বাঙালির কল্যাণের দিন।”

“সংবিধান বাঁচাও সমিতি”র পক্ষে ফারুক আহমেদ রাজ্যের সমস্ত বঞ্চিত মানুষদের কাছে আবেদন রেখে তিনি জানিয়েছেন, “আপনারা দলে দলে দলিত ও সংখ্যালঘু ভাই বোনেদের সঙ্গে মহামিছিলে যোগ দিন। ২৮ এপ্রিল আসছে দিন নিজের অধিকার বুঝে নিন। দলিত ও সংখ্যালঘু মহাজোটে আপনিও যোগ দিন। চরম বঞ্চনার অবসান ঘটাতে রুখে দাঁড়ান দলে দলে। অধিকার সচেতন হয়ে দেশের সংবিধান বাঁচাতে, গণতন্ত্রকে রক্ষা করতে হাতে হাত ধরে এগিয়ে আসুন ।”

Advertisements
IBGNewsCovidService
Bloodrush-2
USD