বইমেলার শেষ দিন মৃণাল সেন মুক্তমঞ্চ মাতিয়ে দিল উদার আকাশ

0
550
বইমেলার শেষ দিন মৃণাল সেন মুক্তমঞ্চ মাতিয়ে দিল উদার আকাশ
বইমেলার শেষ দিন মৃণাল সেন মুক্তমঞ্চ মাতিয়ে দিল উদার আকাশ
0 0
Azadi Ka Amrit Mahoutsav

InterServer Web Hosting and VPS
Read Time:16 Minute, 22 Second

আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলা ২০২৩ মাতিয়ে রাখে উদার আকাশ

ফারুক আহমেদ

জানুয়ারি ৩০ সোমবার আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলা ২০২৩ আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেছিলেন পশ্চিমবঙ্গ সরকারের মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
উদার আকাশ স্টলে উত্তরণ ঘটে ৪৬তম আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলায়। লিটল ম্যাগাজিনের টেবিল থেকে বড় স্টলে উদার আকাশ জুড়ে পাঠক দরবারে সমাদৃত হয়েছে। বিপুল সংখ্যক মানুষ বই সংগ্রহ করেছেন উদার আকাশ স্টল থেকে।
উদার আকাশ প্রকাশনের দুটি গ্রন্থ উদ্বোধন করেন কবি সুবোধ সরকার। উপস্থিত ছিলেন আল-আমীন মিশনের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক এম নুরুল ইসলাম, লেখক সা’আদুল ইসলাম, সোনা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং উদার আকাশ সম্পাদক-প্রকাশক ফারুক আহমেদ। শনিবার ৪ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলার মূল এসবিআই অডিটোরিয়ামে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হল সোনা বন্দ্যোপাধ্যায়-এর সম্প্রীতির উপর লেখা প্রবন্ধ সংকলন “পাশাপাশি বাস তবে কেন উদাসীন?” এবং অধ্যাপক সা’আদুল ইসলাম-এর লেখা কাব্যগ্রন্থ “সে আসবে বলে”।

আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলায় উদার আকাশ থেকে প্রকাশিত হয় বেশ কয়েকটি গ্রন্থ। শনিবার দুটি গ্রন্থের উদ্বোধন হয়। উদার আকাশ আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলা বিশেষ সংখ্যা ১৪২৯ প্রকাশ হয় বৃহস্পতিবার। এবার বইমেলায় উদার আকাশ প্রথম স্টল পেয়েছে। প্রতি বছরের মতো এ বছরও উদার আকাশ জুড়ে পাঠকদের মধ্যে উৎসাহ দেখা দিয়েছিল। গবেষণা গ্রন্থ প্রকাশে ইতিমধ্যেই উদার আকাশ একটা বিশেষ জায়গা করে নিয়েছে পাঠক দরবারে। উভয় বঙ্গের মানুষের ভালবাসা অর্জন করেছে উদার আকাশ পত্রিকা ও উদার আকাশ প্রকাশন সংস্থা।
উদার আকাশ থেকে প্রকাশিত হয় পূরবীতা মজুমদারের কাব্যগ্রন্থ মেঘলা মেয়ের মন। এক ঝাঁক কবি, সাহিত্যিক, শিক্ষাবিদের আন্তরিক উপস্থিতিতে উদ্বোধন হয় উদার আকাশ প্রকাশনার কাব্যগ্রন্থ ‘মেঘলা মেয়ের মন’।‌ কবি পূরবীতা মজুমদারের এটি প্রথম কাব্যগ্রন্থ।‌ কবি প্রবীর ঘোষ রায়, লেখক মো: আবেদ আলি, উদার আকাশ সম্পাদক-প্রকাশক ফারুক আহমেদ, শিল্পী শ্যামল মজুমদার, প্রাবন্ধিক সুব্রতা ঘোষ রায়, আরম্ভ পত্রিকার সম্পাদক লালন বাহার, অধ্যাপক কমল সরকার, কবি অরিজিৎ বাগচী, কবি আবীর মুখোপাধ্যায়, কবি রূপ গঙ্গোপাধ্যায়, কবি স্মৃতি সাহা মল্লিক, কবি অলক ঘোষ প্রমুখ বিশিষ্ট মানুষজন উপস্থিত ছিলেন এই অনুষ্ঠানে।
পূরবীতা মজুমদার ‘কবিতা এবং’ পত্রিকার সম্পাদক। পত্রিকাটি ইতিমধ্যেই পাঠকের নজরে এসেছে। দুটি সংখ্যা প্রকাশকালেই ‘সপ্তপর্ণ’ থেকে এই বছরের ‘সেরা পত্রিকা’ সম্মাননা অর্জন‌ করেছে। এই কাব্যগ্রন্থ সকলের মনোগ্রাহী হবে এমন আশা করাই যায়।

উদার আকাশ বইমেলা বিশেষ সংখ্যা উদ্বোধন করেন উচ্চশিক্ষা মন্ত্রী অধ্যাপক ব্রাত্য বসু। বৃহস্পতিবার ৯ ফেব্রুয়ারি আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলায় দমদম বিধানসভার বিধায়ক এবং পশ্চিমবঙ্গ সরকারের শিক্ষা বিভাগের ভারপ্রাপ্ত মন্ত্রী অধ্যাপক ব্রাত্য বসু এবং গিল্ডের সভাপতি সুধাংশু শেখর দে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করলেন “উদার আকাশ” আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলা বিশেষ সংখ্যা ২০২৩। উদার আকাশ পত্রিকার সম্পাদক হিসেবে শিক্ষা বিভাগের ভারপ্রাপ্ত মন্ত্রী অধ্যাপক ব্রাত্য বসুর হাতে উদার আকাশ পত্রিকার বিশেষ সংখ্যাটি তুলে দিই। এই সংখ্যায় কলম ধরেছেন দুই বাংলার শতাধিক লেখক। গুচ্ছ কবিতা লিখেছেন সুবোধ সরকার সহ বেশ কয়েকজন প্রখ্যাত কবি।
গ্রন্থবীক্ষণে ব্রাত্য বসুর উপর লেখা বেস্ট সেলার বই আলোচনা করেছেন বর্ণালি হাজরা। খাজিম আহমেদ-এর সাক্ষাৎকার নিয়েছেন রাজন গঙ্গোপাধ্যায়। প্রবন্ধ লিখেছেন সুমিত মুখোপাধ্যায়, মইনুল হাসান সহ অনেকেই।
ইসলাম চর্চা, গবেষণা, বিশেষ নিবন্ধ, সাহিত্যের আলো, নজরুল চর্চা, বিশেষ আলোকপাত, বিশ্বসাহিত্য, স্থাপত্য ও ভাস্কর্য, স্মরণ, কবিতা, উপন্যাস, গল্প, বিশেষ রচনা, চলচ্চিত্র সহ একাধিক বিভাগ নিয়ে সেজে উঠেছে উদার আকাশ বইমেলা বিশেষ সংখ্যা।
আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলা বিশেষ সংখ্যা ২০২৩ উদার আকাশ পত্রিকার সম্পাদকীয় লিখেছি, “সংস্কৃতি ছাড়া জীবন দুর্বিষহ
সাহিত্য ও সংস্কৃতি জীবনের অবিচ্ছেদ্য অংশ। মানুষকে জীবনধারণের জন্য যেমন আহার ভক্ষণ করতে হয়, ঠিক তেমনই বেঁচে থাকার জন্য সংস্কৃতির অপরিহার্যতা প্রাসঙ্গিক হিসেবে দেখা দেয়। তাই সংস্কৃতি ছাড়া জীবন দুর্বিষহ। সংস্কৃতি হল বস্তু ও নির্বস্তুক কলাকৌশলসমূহের সমষ্টি, যা নৈতিক পক্ষপাতশূন্য। সংস্কৃতিতে ভালোমন্দের বিষয়টি মূল্যবোধ হিসেবে বিবেচিত হয়। সে কারণে সংস্কৃতিকে বলা হয় আহরিত আচরণ। যা একটি নিয়ম-কানুনের সমষ্টি। এমন সমষ্টিগত আহরণকে সামনে রেখে পশ্চিমবঙ্গের ঐতিহ্যবাহী প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান ‘উদার আকাশ’ থেকে প্রকাশিত হল সৃজন সাহিত্যের পিয়ার রিভিউড দ্বিভাষিক রিসার্চ জার্নালের ‘আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলা ১৪২৯’ সংখ্যাটি। বাংলা, বাঙালি, বাঙালিত্ব ও বাঙালি সংস্কৃতির অখণ্ড ইতিহাসকে তুলে আনবার একটি অন্যতম মাধ্যম হিসেবে জার্নালটির প্রকাশক নিরলস প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন। বাঙালি সংস্কৃতির যতগুলো সূচক আছে তার মধ্যে গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হল ভাষা। সমাজের ভিন্নতা সত্ত্বেও বাংলা বাঙালিরই ভাষা। সমাজে যখন থেকে বাংলা ভাষার ব্যাবহার ও প্রচলন শুরু হয়েছে তখন থেকে বাঙালি সংস্কৃতির সূচনা। এই সংস্কৃতিকে অমর ও অভিন্ন আবেদনে সম্প্রীতির বন্ধনে আবদ্ধ করে রাখার নিমিত্তে ‘উদার আকাশ’ জার্নালের প্রকাশক ও সম্পাদক তাঁর শেকড় সন্ধানী প্রচেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন। জার্নালটিতে প্রকাশিত রচনাসমূহ আগামীকে তথ্যে সমৃদ্ধ করতে চায়-এমন ব্রত নিয়ে এগিয়ে চলার অনাড়ম্বর প্রয়াস। উল্লেখ্য যে, এবছর ‘আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলা ২০২৩’-এর থিম কান্ট্রি স্পেনকে নিয়ে প্রণীত নিদর্শন স্বরূপ। বিশিষ্ট চিত্রকার অধ্যাপক বিশ্বজিৎ মিত্র থিম কান্ট্রি স্পেনকে নিয়ে প্রচ্ছদ নির্মাণ করেছেন।

বইমেলার শেষ দিন মৃণাল সেন মুক্তমঞ্চ মাতিয়ে দিল উদার আকাশ
বইমেলার শেষ দিন মৃণাল সেন মুক্তমঞ্চ মাতিয়ে দিল উদার আকাশ


প্রকাশিত উদার আকাশ জার্নালের ‘আন্তর্জাতিক কলকাতা বইমেলা ১৪২৯’ সংখ্যাটিতে বাংলাদেশ ও ভারতের খ্যাতনামা লেখকগণ তাঁদের লেখা পাঠিয়ে ঋদ্ধতার বন্ধনে আবদ্ধ করেছেন। যাঁদের লেখা এই সংখ্যায় প্রকাশিত হয়েছে তাঁদের মধ্যে রয়েছেন গবেষক, প্রাবন্ধিক, ইতিহাসজ্ঞ, সাহিত্য সমালোচক, কথাসাহিত্যিক, ঔপন্যাসিক, ছোটোগল্পকার, সুচিন্তক এবং অসংখ্য গুণধর কবি ও সাহিত্যিক। বিষয়বস্তু অনুসারে সংখ্যাটিতে স্থান পাওয়া লেখার তালিকায় অন্তর্ভুক্তি হয়েছে কবিতা, সাক্ষাৎকার, প্রবন্ধ, বিশেষ নিবন্ধ, নজরুল চর্চার নানা অনুষঙ্গ, গ্রন্থবীক্ষণ, বিশ্বসাহিত্য, স্থাপত্য-ভাস্কর্য, স্মরণ প্রভৃতি মৌলিক রচনা। সংখ্যাটিতে যাঁরা লেখা দিয়ে সানুগ্রহ দেখিয়েছেন তাঁদের কাছে আমি চির কৃতজ্ঞ। এই সংখ্যায় প্রকাশিত লেখাসমূহ মানব কল্যাণের নিমিত্তে সহায়ক হলে আমার শ্রম সার্থক হিসেবে মনে করব। এমন মহৎ একটি কর্ম সম্পাদন করতে গিয়ে ভুলত্রুটি থেকে যেতে পারে। এজন্য বিনয়াবনত হয়ে ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখবার অনুরোধ রাখলাম। আগামীতে সবারই সহৃদয় সমাদর প্রত্যাশা করছি। সকলের কল্যাণ হোক।”

বইমেলার শেষ দিন মৃণাল সেন মুক্তমঞ্চ মাতিয়ে দিল উদার আকাশ। বইমেলার শেষ দিন মৃণাল সেন মঞ্চ মাতিয়ে দিল উদার আকাশের উদ্যোগে আয়োজিত সাহিত্য উৎসব ও গ্রন্থ প্রকাশ অনুষ্ঠন। উদার আকাশ পত্রিকা সাহিত্য ও সংস্কৃতির জগতে একটি গুরুত্বপূর্ণ নাম। বিশিষ্ট শিক্ষাবিদ প্রবীর ঘোষ রায়ের সুযোগ্য সঞ্চালনায় প্রথমেই উদার আকাশের সম্পাদকীয় সংক্ষিপ্ত ভাষণে ছুঁয়ে যাই উদার আকাশের পথ চলা ও ভবিষ্যৎ দায়িত্বের কথা। অনুষ্ঠান শুরু হয় রাজর্ষি ভট্টাচার্যের গাওয়া লোকগান দিয়ে। উপস্থিত শ্রোতারা প্রথমেই একাত্ম হয়ে যান রাজর্ষির গানের সঙ্গে উদার আকাশের অনুষ্ঠানে। এরপর কবিতায় ও বক্তব্যে ছিলেন ওয়াচ টাওয়ারের সম্পাদক সিদ্ধার্থ বসু, বিশিষ্ট সাহিত্যিক ও অনুষ্ঠানের সভাপতি মইনুল হাসান, অধ্যাপক ও ভাষা ও চেতনার কর্ণধার ইমানুল হক, লেখক মোঃ আবেদ আলী, কবি মনিরা খাতুন, কবি ও নতুন গতি পত্রিকার সম্পাদক ইমদাদুল হক নূর, কবি জয়দীপ চট্টোপাধ্যায়, অধ্যাপক নবনীতা বসু হক, অধ্যাপক তৌহিদ হোসেন, অধ্যাপক রতন ভট্টাচার্য, কবি সীমান্ত বসু, কবি অরূপ বন্দোপাধ্যায়, কবি লিটন রাকিব, কবি অর্ণব বসু, অধ্যাপক শর্মিষ্ঠা সিনহা, কবি পূরবীতা মজুমদার, প্রাবন্ধিক সুব্রতা ঘোষ রায় প্রমুখ। স্বনামধন্য অমিত কালী গাইলেন তাঁর এবারের বইমেলায় প্রকাশিত বইমেলাকেন্দ্রিক মিষ্টি গান। অনুষ্ঠানে অল্প কিছু সময়ের জন্য উপস্থিত ছিলেন গুরুচন্ডালির প্রাণপুরুষ সৈকত বন্দ্যোপাধ্যায়। অনুষ্ঠানে উদার আকাশ প্রকাশন সংস্থা থেকে প্রকাশিত দুটি গ্রন্থের মোড়ক উন্মোচন হয়। বিশিষ্ট কলামিস্ট ও লেখক মইনুল হাসান দুটি গ্রন্থ উদ্বোধন করেন স্বনামধন্য সাংবাদিক অমল সরকার-এর গবেষণা গ্রন্থ ‘বাবরি ধ্বংসের তিন দশক ষড়যন্ত্র সুবিধাবাদের আখ্যান’ ও বাংলাদেশের লেখক সোনিয়া তাসনিম-এর ‘বিস্তীর্ণ জলছবি’-র দ্বিতীয় সংস্করণ। যাঁদের আন্তরিক সহযোগিতায় উদার আকাশ বইমেলায় বিপণী সচল রাখেন, তাঁদেরকে এই অনুষ্ঠানের শেষে সম্বর্ধনা দেওয়া হয়। মতিঝিল কলেজের ইংরাজির অধ্যাপক ড. কমল সরকার ও তাঁর সুযোগ্য তিনজন কৃতি ছাত্র সমরজিৎ দত্ত, শতায়ু সরকার, রাজর্ষি ভট্টাচার্যকে সম্বর্ধনা প্রদান করা হয় উদার আকাশ প্রকাশনের পক্ষ থেকে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন পুস্তকপ্রেমী অনেক গুণীজন। উদার আকাশ স্টলে উপস্থিত ছিলেন লেখক ও সাংবাদিক অমল সরকার।

এদিন মৃণাল সেন মুক্ত মঞ্চে উদার আকাশ পত্রিকা ও প্রকাশনের অনুষ্ঠানে পুবের কলম পত্রিকার সম্পাদক আহমেদ হাসান ইমরান দুটি গ্রন্থের উদ্বোধন করেন। তিনি বই দুটি নিয়ে মূল্যবান বক্তব্য রাখেন।

রবিবার ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ ছিল কলকাতা আন্তর্জাতিক বইমেলার শেষ দিন। এদিন মৃণাল সেন মুক্তমঞ্চে উদ্বোধন করা হয় দু’টি বইয়ের। বই দু’টি নাম ‘অকণিহঁতলৈ জেবীন জেঠাইর পরা’ অন্য বইটির নাম ‘A Poetic Platter’। পুস্তক দু’টির লেখিকা সাইয়্যেদা জেবীন সাবিরা শাহ। লেখিকা জেবীন শাহ বর্তমানে নিউইয়র্কে প্রবাসে থাকেন। তাঁর অসমীয়া বইটি হচ্ছে কচিকাঁচাদের জন্য লেখা। আর ইংরেজি বইটি হল বেশকিছু অসমীয়া কবিতার ইংরেজি অনুবাদের সংকলন। অনুবাদ করেছেন জেবীন শাহ। পুস্তক দু’টি উদ্বোধন করেন পুবের কলম পত্রিকার সম্পাদক আহমদ হাসান ইমরান। সঙ্গে ছিলেন উদার আকাশ পত্রিকার সম্পাদক ফারুক আহমেদ, নতুন গতি পত্রিকার সম্পাদক এমদাদুল হক নূর, বিশিষ্ট লেখক প্রবীর ঘোষ রায়, কলামিস্ট, কবি ও লেখক সুব্রতা ঘোষ রায়, শর্মিষ্ঠা সিনহা প্রমুখ।

About Post Author

Editor Desk

Antara Tripathy M.Sc., B.Ed. by qualification and bring 15 years of media reporting experience.. Coverred many illustarted events like, G20, ICC,MCCI,British High Commission, Bangladesh etc. She took over from the founder Editor of IBG NEWS Suman Munshi (15/Mar/2012- 09/Aug/2018 and October 2020 to 13 June 2023).
Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %
Advertisements

USD





LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here