Mamata Banerjee’s Flight was on Low Fuel – Indian Parliament gets High on Temper

0
482
Mamata Banerjee
Mamata Banerjee

Flight carrying Mamata Banerjee denied permission to land despite low fuel: Opposition demands enquiry in Parliament

Flight carrying Mamata Banerjee denied permission to land despite low fuel: Opposition demands enquiry in Parliament

Leader of the party in Lok Sabha and Rajya Sabha, along with senior leaders of Opposition parties today demanded explanation from the Union Minister of Civil Aviation after a flight carrying Mamata Banerjee was denied landing despite low fuel last night at Dumdum airport.

In Lok Sabha, Sudip Bandyopadhyay said, “The government must ensure the well-being and security of Mamata Banerjee. Her life is under threat. There must be full enquiry into the incident.”

Calling this “ultra-authoritarianism”, Derek O’Brien said in Rajya Sabha, “Why was the aircraft denied permission to land? This is suspicious. If this is happening to one Opposition leader today, it can happen to any other Opposition leader tomorrow.”

Opposition leaders demand inquiry

Leaders of all Opposition parties, led by the Leader of Opposition, Shri Ghulam Nabi Azad, expressed their concern and demanded a thorough inquiry into the incident. The other speakers included Ram Gopal Yadav (SP), Mayawati (BSP), Sharad Yadav (JDU), Prem Chand Gupta (RJD), TK Rangarajan (CPIM), Navneetha Krishnan (AIADMK) , Tiruchi Siva (DMK), Rajeev Shukla (INC), KTS Tulsi (Nominated).

KTS Tulsi, who is also a senior lawyer, suggested an FIR of attempt to murder ought to be registered for endangering lives of people.

The incident

Bengal Chief Minister was travelling back to Kolkata from Patna on an Indigo flight (6E-342).The scheduled departure time from Patna was at 6:35 PM and the scheduled arrival time to Kolkata was at 7:35 PM.

The aeroplane was coming from Lucknow and was already delayed and it left Patna for Kolkata at 7:35 PM. At 8:05 PM, the aeroplane was 180 km away from Kolkata. The pilot informed the passengers that it will take 15-20 minutes more for touchdown as seven other flights were waiting to land and his flight will land as the eighth one.

After circling over Kolkata for 32 minutes, the plane finally landed at 8:45 PM. The pilot informed air traffic control at 8:13 PM that fuel was very low and sought permission to land repeatedly thereafter.

Police, fire brigade and ambulance were deployed near the runway in case of emergency or crash landing.

 

মুখ্যমন্ত্রীর বিমান বিভ্রাট ইস্যুতে উত্তাল সংসদ

গতকাল পাটনা থেকে যে বিমানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কলকাতায় ফিরছিলেন সেটির জ্বালানি কমে  যাওয়া সত্ত্বেও অবতরণের অনুমতি না পাওয়ায় সেটি আকাশে আধঘণ্টা ঘুরপাক খায়। এই প্রসঙ্গে আজ সংসদের উভয়কক্ষেই তৃণমূল সাংসদরা সহ অন্যান্য বিরোধী দলের নেতারা অসামরিক বিমান চলাচল মন্ত্রীর ব্যাখ্যা দাবি করেন।

লোকসভায় দলনেতা সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, “একজন মুখ্যমন্ত্রীর নিরাপত্তা নিশ্চিত করা উচিত সরকারের। তাঁর জীবন সংকট হয়েছিল। এই ঘটনার পূর্ণ তদন্ত করতে হবে”।

সরকারকে ‘স্বৈরতান্ত্রিক’ আখ্যা দিয়ে রাজ্যসভার দলনেতা ডেরেক ও ব্রায়েন জানান, “কেন বিমান অবতরণের অনুমতি অস্বীকার করা হয়েছিল? এই ঘটনা সন্দেহজনক । আজ এক বিরোধী দলনেত্রীর  সঙ্গে এরকম ঘটনা ঘটেছে কাল অন্য বিরোধী দলনেতাদের সঙ্গেও এটা হতে পারে”।

কংগ্রেস, বিএসপি, এসপি, জেডি (ইউ), আরজেডি সহ আরও বিরোধী দলের নেতারাও এই ঘটনায় উদ্বেগ প্রকাশ করেন এবং ঘটনার পুঙ্খানুপুঙ্খ তদন্ত দাবি করেন।

যা ঘটেছিলঃ

ইন্ডিগোর বিমানে (৬ই-৩৪২) গতকাল পাটনা থেকে কলকাতা ফিরছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিমানটি পাটনা থেকে ওড়ার কথা ছিল সন্ধ্যা ৬টা ৩৫ মিনিটে এবং কলকাতায় নামার কথা ছিল ৭.৩৫ মিনিটে।

বিমানটি লখনউ থেকে আসছিল এবং দেরি হওয়ার কারণে এটি পাটনা থেকে ছাড়ে ৭.৩৫ মিনিটে। ৮.০৫ মিনিটে যখন বিমানটি কলকাতা থেকে ১৮০ কিলোমিটার দূরে তখন পাইলট যাত্রীদের ‘লো অন ফুয়েল’ সঙ্কেত পাঠান এবং জানান যে বিমান অবতরণ করতে ১৫-২০ মিনিট সময় বেশি লাগবে।

প্রায় ৩২ মিনিট ধরে বিমানটি আকাশে ঘুরপাক খাওয়ার পর পরিশেষে রাত ৮.৪৫ মিনিটে কলকাতা বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

জরুরী অবতরণ বা ক্র্যাশ ল্যান্ডিং-এর জন্য  রানওয়ের কাছে পুলিশ, ফায়ার ব্রিগেড ও অ্যাম্বুলেন্স মোতায়েন ছিল।