Bengal Textile Dept to promote silk marriage sari as alternative to Banarasi

0
836
Bengal Sari
Bengal Sari

Bengal Textile Dept to promote silk marriage sari as alternative to Banarasi

Bengal Textile Dept to promote silk marriage sari as alternative to Banarasi

The idea of creating a market competitor of Banarasi – one of the finest wedding-wear for the brides across the nation – is now nurtured by the experts working under Bengal MSME and Textile Department.

‘Silk Marriage Sari’ – will be an alternative for ‘Banarasi Sari’ in West Bengal.

“I have confirmation from the Chief Minister to go ahead with this project. She has instructed us to finish the research work and commence the production as soon as possible,” said MSME and textile minister.

“Our production will be modern and gorgeous. The elegant look, stunning hand-made designs, colours would beat its competitors in wedding sari segment,” said the minister.

The Silk Marriage sari will be showcased in 22 Tantuja showrooms across the State. “We are going to start production at two destinations – Dhatrigram of Burdwan and Fulia of Nadia,” the minister said.

The State Government has hired some expert Banarasi artists, who are presently giving training, teaching and guidance to the Bengal weavers. The promotion and branding, marketing team would be done in a pre-planned way.

 

 

বিয়ের বেনারসির বিকল্প হিসেবে সিল্ক শাড়িকে তুলে ধরবে বস্ত্রদপ্তর

বিয়ের বেনারসি শাড়ির বিকল্প আসতে চলেছে পশ্চিমবঙ্গে। বাংলার তাঁতিরা এই বেনারসি শাড়ির বিকল্প সিল্ক শাড়ি বাংলাতেই তৈরি করবে। পশ্চিমবঙ্গ ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প ও বস্ত্রদপ্তরের উদ্যোগে শুরু হতে চলেছে এই উৎপাদন।

 

ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প ও বস্ত্রদপ্তরের মন্ত্রী জানান, “এই প্রকল্পের কাজ এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী থেকে। গবেষণার কাজ শেষ এবং যত তাড়াতাড়ি সম্ভব উৎপাদন আরম্ভ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে”।

এই সিল্কের শাড়িগুলি তন্তুজর শোরুমে প্রদর্শিত হবে। “তন্তুজর ২২ টি কেন্দ্রে এই সব শাড়ি বিক্রি হবে। বর্ধমানের ধাত্রীগ্রামে এবং নদিয়ার ফুলিয়ায় আমরা আরও দুটি উৎপাদন কেন্দ্র তৈরি করছি।

বাংলার তাঁতিদের প্রশিক্ষণ দিতে বেনারসি শাড়ির বিশেষজ্ঞদের এনেছে রাজ্য সরকার।