থিম সোমনাথ মন্দির কল্যাণীর আই টি আই মোড় সার্বজনীন দূর্গোৎসবের পূজামণ্ডপ দেখার মতো

0
973
Durga Puja at Kalyani,Nadia
Durga Puja at Kalyani,Nadia

থিম সোমনাথ মন্দির কল্যাণীর আই টি আই মোড় সার্বজনীন দূর্গোৎসবের পূজামণ্ডপ দেখার মতো

ফারুক আহমেদ, নদীয়া, ১২ অক্টোবর, ২০১৮: প্রায় ৭০ ফুট উঁচু এই মণ্ডপ নির্মাণে লেগেছে কয়েক কোটি হোমিওপ্যাথির কাঁচের ছোটো শিশি ও নকল হীরে। একটি একটি করে শিশি ও হীরে দিয়ে ধীরে ধীরে ফুটিয়ে তোলা হচ্ছে মণ্ডপের রূপ। মণ্ডপ তৈরির প্রধান শিল্পী উইলিয়াম সরকার বলেন প্রায় চারমাস ধরে দিনরাত এক করে প্রায় পঞ্চাশ জন শিল্পী এই নির্মাণ তৈরি করছে। শুধু মণ্ডপই নয় প্রতিমাতেও রয়ছে বিশেষ চমক। প্রতিমার সজ্জায় রুদ্রাক্ষ দিয়ে নির্মিত অলংকারে ব্যবহার করা হচ্ছে। কথা বলছিলাম পূজামণ্ডপ নিয়ে কল্যাণীর অভিষেক পালের সঙ্গে।

থিম সোমনাথ  মন্দির। কল্যাণীর আই টি আই মোড় সার্বজনীন দূর্গোৎসবের পূজামণ্ডপ দেখার মতো হয়েছে যা সকলকেই মুগ্ধ করবে।

লুমিনাস্ ক্লাব ও ব্যবসায়ী সমিতি পরিচালনায় আই টি আই মোড় নদীয়া জেলার কল্যাণীর “সার্বজনীন দূর্গোৎসব কমিটি ২০১৮” দূর্গোৎসব এবছর ২৬ বর্ষে পড়ল। আগামীকাল শনিবার ফিতে কেটে শুভ সূচনা করবেন রাজ্যের উচ্চ শিক্ষামন্ত্রী ড. পার্থ চট্টোপাধ্যায়। এছাড়াও উজ্জ্বল উপস্থিতি বাংলা চলচ্চিত্র জগতের জনপ্রিয় মডেল ও নায়িকা কয়েল মল্লিক। নদীয়া জেলার সেরা পূজা মণ্ডপ গুলোর মধ্যে এটি অন্যতম ও বড় পূজামণ্ডপ হিসেবে ইতিমধ্যে মানুষের মনে দাগ কেটেছে। এই পূজামণ্ডপটি সাজিয়ে তুলতে বিগত চার মাস ধরে বহু মানুষ কাজ করেছেন।

সর্বধর্মের ও সর্ববর্ণের মানুষের মহা মিলনের এই শারদ উৎসব বয়ে আনুক সম্প্রীতির বার্তা।

এবছর লুমিনাস্ ক্লাব ও ব্যবসায়ী সমিতি পরিচালনায় আই টি আই মোড় কল্যাণীর “সার্বজনীন দূর্গোৎসব কমিটি ২০১৮” ২৬ তম বর্ষে এসে বিশেষ ভাবে জোর দিয়েছেন Save Drive Save Life এই প্রচার অভিযানে।

পূজামণ্ডপ যেভাবে সাজানো হয়েছে তা সকলকেই মুগ্ধ করবে এই আশা প্রকাশ করছেন কর্মকর্তারা।

প্রতিবছরের মতো এবছরও প্রতিমা দর্শনে আগত হাজার হাজার মানুষ মুগ্ধ ও বিমুগ্ধ হবেন এমনটাই সংশ্লিষ্ট আয়োজকদের ধারণা। এবারও ভিড়ের ঢল নামবে প্রতিবছরের মতোন।

এই সার্বজনীন দূর্গোৎসব এর প্রধান কর্মকতা তথা কল্যাণী শহর তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি অরূপ মুখোপাধ্যায় এই শারদোৎসবে সকল ধর্মের ও সকল বর্ণের মানুষের প্রতি আন্তরিক শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। সব ধর্মের সব বর্ণের মানুষের বিভিন্ন উৎসবের দিনগুলো সকলের খুব খুব ভাল কাটুক। এই প্রতিবেদকে তিনি জানান, সম্প্রীতি-সৌহার্দ্য ও সর্ব ধর্মের মানুষের মধ্যে মিলনের বার্তা ছড়িয়ে দিতে এবং বাংলার ও দেশের মানুষের কল্যাণে এই দূর্গোৎসবের আয়োজন করে আসছেন তিনি বছরের পর বছর ধরে। সকলকে এই পূজামণ্ডপে প্রতিমা দর্শনে আসার জন্য আগাম আমন্ত্রণ জানিয়েছেন কল্যাণী শহর তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি তথা নদীয়া জেলার মানুষের কল্যাণে নিবেদিত প্রাণ অরূপ মুখোপাধ্যায়।