সম্পন্ন হল ভাবনা নৃত্য শিক্ষাকেন্দ্রের চতুর্থতম বর্নাঢ্য বার্ষিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

0
180
ভাবনা নৃত্য শিক্ষাকেন্দ্রের চতুর্থতম বর্নাঢ্য বার্ষিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান
ভাবনা নৃত্য শিক্ষাকেন্দ্রের চতুর্থতম বর্নাঢ্য বার্ষিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

সম্পন্ন হল ভাবনা নৃত্য শিক্ষাকেন্দ্রের চতুর্থতম বর্নাঢ্য বার্ষিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান

ভাবনা নৃত্য শিক্ষাকেন্দ্রের পক্ষ থেকে রবিবার
অনুষ্ঠিত হল চতুর্থতম বার্ষিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। হুগলির শেওড়াফুলির সুরেন্দ্রনাথ বিদ্যানিকেতন-এ এই বার্ষিক অনুষ্ঠানে ছিল চাঁদের হাট। এদিন এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা সরকার, ‘রাণী রাসমণি’ খ্যাত টেলি অভিনেত্রী সমতা দাস, অভিনেত্রী ইন্দ্রানী দত্ত, ‘নকশিকাঁথা’ খ্যাত টেলি অভিনেতা সুমন দে, ক্ল্যাসিক্যাল সংগীতশিল্পী শ্রেয়া দাস, ‘ময়ূরপঙ্খী’ খ্যাত টেলি অভিনেতা সৌম্য মুখার্জী, বৈদ্যবাটি পুরসভার চেয়ারম্যান শ্রী অরিন্দম গুঁইন, নৃত্যশিল্পী মিত্রা গুঁইন, শ্রীমতী মীনা সাধুখাঁ, সমাজসেবী সিন্টু বাগুই, অভিনেতা প্রেমজিৎ, কাউন্সিলর মহুয়া ভট্টাচার্য, নৃত্যশিল্পী প্রবীর দে, বাবু ঘোষ সহ অন্যান্য বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ।

এদিন সংগীতশিল্পী শ্রেয়া দাসের সুরেলি কণ্ঠের জাদুতে শুরু হয় এদিনের অনুষ্ঠান। একইসঙ্গে অতিথিদের হাত ধরে হয়ে গেল প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের অনুষ্ঠানও। পাশাপাশি প্রজাতন্ত্র দিবস উপলক্ষে ভাবনা নৃত্য শিক্ষাকেন্দ্রের ছাত্রছাত্রীদের দেশাত্ববোধক ‘জয় হো’ গানের উপরে অসাধারণ নৃত্য পরিবেশনা মুগ্ধ করে দর্শকদের। পাশাপাশি অনুষ্ঠানে অতিথিদের সম্মাননা প্রদান করা হয়। এদিন এই বর্নাঢ্য বার্ষিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রয়াত বলিউডের কিংবদন্তি অভিনেত্রী শ্রীদেবীর স্মরণে ভাবনা নৃত্য শিক্ষাকেন্দ্রের পক্ষ থেকে এক বিশেষ নৃত্য পরিবেশনার মাধ্যমে শ্রদ্ধাঞ্জলি প্রদান করা হয়। এছাড়াও এদিন সেরা ছাত্রছাত্রীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা সরকার। যা সাংস্কৃতিক সন্ধ্যায় এক অন্যমাত্রা যোগ করে।
শুধু কি তাই অভিনেতা সুমন দে-র নৃত্য প্রদর্শন এদিনের সন্ধ্যায় ছিল বাড়তি পাওনা।
চতুর্থতম বার্ষিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান সম্পর্কে
ভাবনা নৃত্য শিক্ষাকেন্দ্রের কর্ণধার এবং কোরিওগ্রাফার বাপি সাধুখাঁ জানান, ” খুবই ভালো লাগছে। প্রতি বছরই বার্ষিক অনুষ্ঠানে কিছু নতুনত্বের ছোঁয়া থাকে।এবছরও তাঁর ব্যতিক্রম নয়। ভাবনা নৃত্য শিক্ষাকেন্দ্রে বিভিন্ন ধরণের নাচ যেমন ভারতনাট্যম ,রবীন্দ্রনৃত্য, ক্রিয়েটিভ, ফোক পাশাপাশি ওয়েস্টার্ন নাচও শেখানো হয়। প্রত্যেকটি ভিন্ন ডান্সের জন্য রয়েছে আলাদা করে সুপ্রশিক্ষক। এছাড়াও এখানে রয়েছে পরীক্ষা নেওয়ার সুব্যবস্থা যাতে ছাত্রছাত্রীদের সঠিক মূল্যায়ন করা যেতে পারে।
বর্তমানে ছাত্রছাত্রীরা সংখ্যা প্রায় ১৫০ জন। ভাবনা নৃত্য শিক্ষাকেন্দ্র শুধুমাত্র আমার কাছে একটা ডান্স স্কুল নয় এটা একটা পরিবার। যাদের প্রতিভা আছে অথচ টাকার অভাবে শিখতে পারে না তাঁদেরকেও আমি বিনামূল্যে ডান্স শেখাই।”

এদিন ভাবনা নৃত্য শিক্ষাকেন্দ্রের চতুর্থ তম বার্ষিক অনুষ্ঠান সম্পর্কে টলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা সরকার জানান, ” এই অনুষ্ঠানগুলো অনেকটা এনকারেজমেন্টের জায়গা। বাচ্চারা যখন এখানে পারফরম্যান্স করে তাঁর পরিবার একইসঙ্গে অন্যান্য দর্শকেরাও সেটা দেখে। যখন তাদের পারফরম্যান্স প্রশংসা পায় তখন তাঁদের কাছে সেটা এক বিশাল প্রাপ্তি। ভাবনা নৃত্য শিক্ষাকেন্দ্র আরো আরো এইভাবে এগিয়ে চলুক আমি এই কামনা করি ।

“বাপির সাথে অনেকদিনধরে কাজ করছি । আজকে এখানে এসে দেখলাম বাপি ছাত্রছাত্রীদের পাশাপাশি অভিভাবকেরও নাচ
শিখিয়েছে। বাপি খুবই নিখুঁত কোরিওগ্রাফার।”- এদিন ভাবনা নৃত্য শিক্ষাকেন্দ্রের বার্ষিক অনুষ্ঠানে এমনই মন্তব্য করেন বিশিষ্ট অভিনেত্রী ইন্দ্রানী দত্ত।

নৃত্যের ছন্দে মেতে উঠল ভাবনা নৃত্য শিক্ষাকেন্দ্রের চতুর্থতম বর্ণাঢ্য বার্ষিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here