মদ উচ্ছেদ মহিলা কমিটির থানায় ডেপুটেশন – দক্ষিন দিনাজপুর জেলার বুনিয়াদপুর বংশীহারী থানায় প্রায় শতাধিক মহিলাদল ডেপুটেশন দিলেন

0
906
South Dinajpur - Protest by Ladies
South Dinajpur - Protest by Ladies

মদ উচ্ছেদ মহিলা কমিটির থানায় ডেপুটেশন

পল মৈত্র,বুনিয়াদপুর,দক্ষিন দিনাজপুরঃ বুধবার দুপুরে দক্ষিন দিনাজপুর জেলার বুনিয়াদপুর বংশীহারী থানায় প্রায় শতাধিক মহিলাদল ডেপুটেশন দিলেন। মদ উচ্ছেদ মহিলা কমিটির পক্ষ থেকে এদিন বুনিয়াদপুর শহর থেকে পায়ে হেটে পরিক্রমা করে থানা উপস্থিত হন এবং ডেপুটেশন। উল্লেখ্য মঙ্গলবার বুনিয়াদপুর সরাইহাটের এক আদিবাসী এলাকায় (যারা চোলাই মদ বিক্রী করেন) তাদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে এসব বন্ধের জন্য মদ উচ্ছেদ মহিলা কমিটির প্রায় শতাধিক মহিলারা প্রতিবাদ জানালে অত্র এলাকার আদিবাসীরা মহিলাদের উপর লাঠি নিয়ে চড়াও হন পাশাপাশি সেই ঘটনায় ৩ জন মহিলা আহত হন।

ঘটনার খবর পেয়ে বংশীহারী থানার বিশাল পুলিশ বাহিনী উপস্থিত হয়ে মদ উচ্ছেদ মহিলা কমিটির মহিলাদের সুরক্ষা বলয়ে আশ্রয় দেন। বুধবার সেই ঘটনার প্রতিবাদে বিভিন্ন চোলাই মদ বিক্রীর প্রতিবাদে তারা থানায় ডেপুটেশন দেন। এবিষয়ে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার মদ উচ্ছেদ মহিলা কমিটির সম্পাদিকা বাবলি বসাক জানান, গতকালের ঘটনাটি খুব নিন্দনীয় তার তীব্র প্রতিবাদ জানাই আজ আমরা সেই ঘটনায় দোষীদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার ও অবৈধ চোলাই মদ বিক্রী বন্ধের জন্য থানায় ডেপুটেশন দিচ্ছি। পাশাপাশি এই মদের নেশায় শ্রমজীবী ও সমাজের গরীব মানুষরা নানান অসুখে ভুগছেন তার সাথে লেগে রয়েছে সাংসারিক দন্দ্ব। তাই আমরা অবিলম্বে চোলাই মদ অবৈধ মদ বিক্রী ও কারবার বন্ধের আর্জী জানাচ্ছি। তা না হলে আমরা ভবিষ্যতে বৃহত্তর আন্দোলনে নামবো।

অন্যদিকে একই সাথে বুনিয়াদপুর ৩ নং ওয়ার্ডের মহিলারা থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়ে ডেপুটেশন দিলেন। প্রসঙ্গত চলতি মাসে পরপর ৯ টি চুরির ঘটনা ঘটলেও পুলিশ এখনো সেইসব ঘটনার সুরাহা ও কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেননি। পুলিশ প্রশাসনের নিস্কৃয়তার অভিযোগ উঠেছে। এদিন বুনিয়াদপুর ৩ নং প্রায় শতাধিক মহিলারা থানায় লিখিত অভিযোগ করে ডেপুটেশন দেন। এবিষয়ে নুপুর মন্ডল, আরতি সরকার, মৌসুমি বিশ্বাসরা জানান, চলতি মাসে বুনিয়াদপুরের বিভিন্ন ওয়ার্ডে পরপর ৯ টি বড়ো চুরির ঘটনা ঘটলেও পুলিশ কাউকে গ্রেপ্তার করতে পারেননি।

পাশাপাশি বারবার চুরির ঘটনা ঘটছে আমরা অবিলম্বে এই ঘটনা যাতে না ঘটে তার জন্য পুলিশ প্রশাসনকে পাড়ায় পাড়ায় পাহারা দেওয়ার আর্জি জানাচ্ছি তার সাথে অবিলম্বে ঘটে যাওয়া চুরির ঘটনাগুলির কিনারা করার আবেদন জানাই। আমরা জেনেছি এই থানার পুলিশরা ডাকাত ধরে সুনাম অর্জন করেছেন তাহলে চোর ধরতে বা চুরির ঘটনাগুলির কোনো কিনারা করতে পারছেন না কেন নাকি চোরেদের সাথে পুলিশের সাথে কোনো গোপন আঁতাত রয়েছে ? অবিলম্বে চুরি যাওয়া সামগ্রী উদ্ধার ও চুরির কিনারা না হলে আমারা বৃহত্তর আন্দোলনে নামবো।