India could lose as much as Rs 4.7 lakh crore in its GDP: Amit Mitra

0
1189
Amit Mitra
Amit Mitra
0 0
Azadi Ka Amrit Mahoutsav

InterServer Web Hosting and VPS
Read Time:5 Minute, 36 Second

India could lose as much as Rs 4.7 lakh crore in its GDP: Amit Mitra

India could lose as much as Rs 4.7 lakh crore in its GDP: Amit Mitra

Criticing the governments move to demonetise old Rs 500/1,000 notes, Bengal Finance Minister Amit Mitra on Thursday said India could lose as much as Rs 4.7 lakh crore in its GDP.

The old high denomination notes were demonetised from November 9. Since then long queues are being witnessed at bank branches and outside ATMs for cash withdrawal.

“Just imagine for Rs 400 crore of supposedly fake money, according to the government itself, you kill or demonetise over Rs 14.5 lakh crore or may be Rs 15 lakh crore.

“I mean what kind of policy is this. Another serious question, we recently saw some new fake money, I am told according to reports. What does this mean. This is horrendous,” the West Bengal minister said.

Calling demonetisation “the biggest scam that is about to happen”, Dr Mitra said it will provide no gain, but only acute pain.

“If these figures (deposits of old notes in banks) are right because what it seems to me is if all the money comes back there was not enough black money… This has two serious implications. One, it could be that the government was purely ignorant because it does not consult anybody…or they have in effect facilitated some people from converting black into white, effectively ending up with no RBI surpluses,” he said.

Dr Mitra also slammed the Centre for trying to enforce cashless economy without preparing grounds for it. “Doesn’t the PM know 86% people have no means to go to cashless economy? 92% villages are unbanked as per RBI figures. There are 21000 unorganised mandis in the country, 383 lakh unorganised units in MSME, which obviously use cash. A major part of any big economy is in cash. To move them into cashless economy is a major task. This cannot be done by destabilising the economy,” he said.

The Bengal Finance Minister, who is also the Chairman of the Empowered Committee of State Finance Ministers on GST, said, “The whole tax architecture will have to change, which is a huge challenge in the form of destabilisation. Can we not move GST a little bit on so that when the economy stabilises (and) people come back to normal living conditions, you bring in another disruption?”

 

নোট বাতিলের ফলে ৪.৭ লক্ষ কোটি টাকা ক্ষতি হতে পারে দেশের জিডিপির: অমিত মিত্র

কেন্দ্রীয় সরকারের হঠকারী নোটবাতিলের সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে বাংলার অর্থমন্ত্রী আমিত মিত্র বৃহস্পতিবার বলেন, এই তুঘলকি সিদ্ধান্তের ফলে দেশের জিডিপির ক্ষতি হবে চার লক্ষ ৭০ হাজার কোটি টাকা।

৮ই নভেম্বর ৫০০ ও ১০০০ টাকার নোট বাতিল করার পর থেকে আজ অবধি প্রতি এটিএম ও বাঙ্কের বাইরে সুদীর্ঘ লাইন দেখা যাচ্ছে টাকা তোলার জন্য।

“ভেবে দেখুন, কেন্দ্রীয় সরকার আনুমানিক ৪০০ কোটি টাকা নকল নোটের জন্য সাড়ে ১৪ বা ১৫ লক্ষ কোটি টাকা বাতিল করল। এটা কি ধরনের সিদ্ধান্ত?” তিনি আরও বলেন যে পরিস্থিতি খুবই ভয়াবহ।

অমিত মিত্র বলেন নোট বাতিল দেশের সব থেকে বড় কেলেঙ্কারি যার ফলে জনসাধারনের অপরিসীম কষ্ট ছাড়া আর কিছুই লাভ হল না।

“যে সংখ্যক পুরোনো নোট বাঙ্কে ফিরে এসেছে, সেই সংখ্যাটি যদি যথাযথ হয়, তার থেকে দুটি ব্যাপার বোঝা যায়। প্রথম, কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে এই ব্যাপারে কোনও তথ্যই ছিল না, কারন, তারা কাওর সঙ্গে কোনও আলোচনাই করেননি। অথবা, তারা কিছু মানুষকে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ করে দিল যে কারনে রিজার্ভ বাঙ্কের কাছে কোনও অধিক টাকা জমা পড়ে নি।”

আমিত মিত্র ক্যাশলেস ইকোনমির ব্যাপারেও কড়া সমালোচনা করে বলেন, কোনও প্রস্তুতি না নিয়েই সরকার ক্যাশলেস ইকোনমির ওপর জোর দিচ্ছেন। “প্রধানমন্ত্রী কি জানেন না যে ৮৬ শতাংশ মানুষের কাছে ক্যাশলেস ইকোনমির সামর্থ নেই। রিজার্ভ বাঙ্কের নথি অনুযায়ী ৯২ শতাংশ গ্রামে বাঙ্ক নেই। দেশে ২১০০০ অসংগঠিত মান্ডি আছে। ৩৮৩ লক্ষ অসংগঠিত ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্প প্রতিষ্ঠান আছে যারা পুরোপুরি ভাবে নগদ টাকায় লেনদেন করেন। এই দেশের সিংহভাগ ব্যাবসাই চলে নোটের ওপর। এই সমস্তকে ক্যাশলেস ইকোনমির দিকে নিয়ে যাওয়া একটি বিশাল কাজ, দেশের অর্থনীতির মেরুদণ্ড ভেঙে সেদিকে এগোনো যায়না,” আমিত মিত্র বলেন।

বাংলার অর্থমন্ত্রী, যিনি অর্থমন্ত্রীদের জিএসটি বিষয়ক এম্পাওয়ার্ড কমিটির চেয়ারম্যানও বটে, আরও বলেন, “জিএসটি লাগু করতে গেলে দেশের কর পরিকাঠামো নতুন করে সাজাতে হবে। নোট বাতিলের জন্য দেশের অর্থনীতি ইতিমধ্যেই সংকটে। তাই, আমরা কি কিছুদিন পরে জিএসটি লাগু করতে পারি না যখন দেশের অর্থনীতি স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসবে?”

About Post Author

Editor Desk

Antara Tripathy M.Sc., B.Ed. by qualification and bring 15 years of media reporting experience.. Coverred many illustarted events like, G20, ICC,MCCI,British High Commission, Bangladesh etc. She took over from the founder Editor of IBG NEWS Suman Munshi (15/Mar/2012- 09/Aug/2018 and October 2020 to 13 June 2023).
Happy
Happy
0 %
Sad
Sad
0 %
Excited
Excited
0 %
Sleepy
Sleepy
0 %
Angry
Angry
0 %
Surprise
Surprise
0 %
Advertisements

USD